একাদশ সংসদ নির্বাচনের পর জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের রাজশাহীর জনসভা থেকে নির্বাচনে অংশ নেয়া, না নেয়ার বিষয়ে স্পষ্ট কিছু বলেননি নেতারা। নতুন কোনো কর্মসূচিও দেয়া হয়নি জনসভা থেকে।

শুক্রবার (৯ নভেম্বর) বিকেলে রাজশাহী নগরীর মাদ্রাসা মাঠে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জনসভা অনুষ্ঠিত হয়। বক্তব্যে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, বেগম খালেদা জিয়াসহ  রাজবন্দিদের মুক্তি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করা না হলে নির্বাচনের তফসিল গ্রহণযোগ্য হবে না।

সব দলের সমান সুযোগ সৃষ্টি ছাড়া সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সম্ভব নয় মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল আরো বলেন, ‘আন্দোলনের মাধ্যমেই সরকারকে ঐক্যফ্রন্টের সব দাবি আদায়ে বাধ্য করা হবে।’

অসুস্থতার কারণে জনসভায় উপস্থিত ছিলেন না ড. কামাল হোসেন। অনুষ্ঠানে জেএসডি’র সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ডা. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বক্তব্য রাখেন।

এসময় তারা অভিযোগ করেন, ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে অংশ নেয়া থেকে বিরত রাখতেই তড়িঘড়ি করে তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here