মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন বলেছেন, নিষেধাজ্ঞা আরোপের পর তার দেশ ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের ওপর চাপ অব্যাহত রাখবে। তাদের লক্ষ্য হচ্ছে ইরানকে শক্তভাবে চেপে ধরা।

বোল্টন মঙ্গলবার বলেন, আট দেশকে ছাড় দেয়ার পরও ওয়াশিংটনের স্বাভাবিক যে লক্ষ্য তা হচ্ছে- ইরানের তেল বিক্রি শূণ্যের কোঠায় নামিয়ে আনা।

এর আগে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও হুমকি দিয়েছেন যে, ইরানকে না খাইয়ে মারবেন তারা। পম্পেওর এ বক্তব্যকে মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ বলে উল্লেখ করেছেন ইরানি পররষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ।

গত ৫ নভেম্বর থেকে ইরানের বিরুদ্ধে মার্কিন তেল নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়ন শুরু হয়েছে। তবে নিষেধাজ্ঞা কার্যকরের আগেই চীন, ভারত, ইতালি, গ্রিস, তাইওয়ান, জাপান, তুরস্ক ও দক্ষিণ কেরিয়াকে নিষেধাজ্ঞার বাইরে রাখা হয়।

ইরানের তেলমন্ত্রী বিজান জাঙ্গানেহ গত সপ্তাহে বলেছেন, আট দেশকে ছাড় দেয়াই যথেষ্ট নয়, সামনে খুবই দুঃখজনক দিন আসছে। এর কারণ হবে অপ্রতুল তেল সরবরাহ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here