বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নিপুণ রায় চৌধুরীসহ সাতজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। রাজধানীর নয়াপল্টনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনায় পল্টন থানার দায়ের করা মামলায় পুলিশ তাদেরকে রিমান্ডে নিয়েছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক কামরুল ইসলাম আজ (শুক্রবার) দুপুরে নিপুণ রায় চৌধুরী ও ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সাধারণ সম্পাদক আরিফা সুলতানাসহ ৭ জনকে হাজির করে ১০ দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকার মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদার পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

আদালতে আসামি পক্ষের আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া ও নিপুণ রায়ের বাবা অ্যাডভোকট নিতাই রায় চৌধুরী আসামিদের রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। নিপুণ রায় চৌধুরীর শ্বশুর, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় শুনানির সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপির নেত্রী নিপুণ রায়ের আইনজীবী জয়নুল আবেদিন মেজবাহ বলেন, ‘আদালতে রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করলে বিচারক জামিনের আবেদন খারিজ করে রিমান্ডের আদেশ দেন।’

এর আগে গতকাল (বৃহস্পতিবার) সন্ধ্যায় নয়াপল্টনের নাইটিঙ্গেল মোড় থেকে নিপুণ রায় চৌধুরীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গত বুধবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় পল্টন থানায় তিনটি মামলা করা হয়। তিনটি মামলাতেই নিপুণ রায়কে আসামি করা হয়েছে। এ তিন মামলায় বৃহস্পতিবার বিএনপির ৬৫ জন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করে রিমান্ড চেয়ে  আদালতে হাজির করা হয়। পরে বিচারক ৩৮ জনকে রিমান্ডে এবং ২৭ জনকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here