তুরস্কের প্রতিরক্ষামন্ত্রী হুলুসি আকার বলেছেন, সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার সঙ্গে জড়িতদের হস্তান্তরের আবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে সৌদি আরব। তিনি গতরাতে কানাডার হেলিফিক্সে নিরাপত্তা বিষয়ক সম্মেলনে এ তথ্য দিয়েছেন।

তুর্কি প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, খুনিরা নিজে থেকে খাশোগিকে হত্যা করে নি। এটা নিশ্চিত করে বলা যায় যে, সৌদি সরকারের উচ্চ মহলের নির্দেশে হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছে। খাশোগিকে হত্যার জন্য সৌদি আরব থেকে ১৮ জন ব্যক্তি তুরস্কের ইস্তাম্বুলে এসেছিলেন বলে তিনি জানান।

এর আগে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এর্দোগান বলেছেন, বিভিন্ন তথ্য-প্রমাণ থেকে এটা স্পষ্ট খাশোগিকে পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে।

জামাল খাশোগি গত ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেট ভবনে ঢোকার পর থেকে নিখোঁজ ছিলেন। প্রথমে অস্বীকার করলেও পরে আন্তর্জাতিক চাপের মুখে সৌদি আরব স্বীকার করে, খাশোগিকে কনস্যুলেট ভবনের ভেতরে হত্যা করা হয়েছে। এখনো পর্যন্ত খাশোগির মৃতদেহের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। সৌদি আরবও এ বিষয়ে কোনো তথ্য দেয়নি। সম্প্রতি খবর বেরিয়েছে, হাইড্রোফ্লুরিক অ্যাসিড দিয়ে তার মরদেহ গলিয়ে ফেলা হয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here