সৌদি রাজতন্ত্র বিরোধী সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যার পরিপূর্ণ তদন্ত রিপোর্ট আগামী দু’দিনের মধ্যে প্রকাশ করার কথা জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

শনিবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ট্রাম্প এ কথা জানান। ট্রাম্প জানান, এই রিপোর্টের মাধ্যমে জানা যাবে এ হত্যাকান্ড মূলত কারা ঘটিয়েছে।

তিনি বলেন, আগামী মোমবার বা মঙ্গলবারের মধ্যেই খাশোগী হত্যা সম্পর্কে পরিপূর্ণ তথ্য দেওয়া হবে।

এদিকে গত শুক্রবার মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্ট মার্কিন গোয়েন্দ সংস্থার বরাতে জানায় যে, সৌদি যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমানই খাশোগি হত্যার নির্দেশ দিয়েছেন। তবে এ হত্যার সাথে মোহাম্মদ বিন সালমানের জড়িত থাকার বিষয়টি বরাবরই অস্বীকার করে আসছে সৌদি সরকার।

গতমাসে তুরস্কের ইস্তাম্বুলস্থ সৌদি কনস্যুলেটে ব্যক্তিগত কাগজপত্র সংগ্রহ করতে গিয়ে নৃশংস হত্যাকাণ্ডের শিকার হন খাশোগি। হত্যাকাণ্ডের শিকার হওয়ার আগে আমেরিকায় বসবাসরত খাশোগি ওয়াশিংটন পোস্টে নিয়মিত কলাম লিখতেন।

এদিকে সম্প্রতি সৌদি সরকার খাশোগিকে হত্যার দায়ে পাঁচ জনকে হত্যার আদেশ দিয়েছে। খাশোগিকে হত্যার পর টুকরো টুকরো করার কথাও স্বীকার করেছেন দেশটির অ্যাটর্নি জেনারেল সৌদ আল মোজেব।

খাশোগি নিখোঁজ হওয়ার পর প্রথমে অস্বীকার করলেও পরে আন্তর্জাতিক চাপের মুখে সৌদি আরব স্বীকার করে, খাশোগিকে কনস্যুলেট ভবনের ভেতরে হত্যা করা হয়েছে।

এখনো পর্যন্ত খাশোগির মৃতদেহের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। সৌদি আরবও এ বিষয়ে কোনো তথ্য দেয়নি। সম্প্রতি খবর বেরিয়েছে, হাইড্রোফ্লুরিক অ্যাসিড দিয়ে তার মরদেহ গলিয়ে ফেলা হয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here