এক সময় রেলের টিটি ছিলেন। সেই চাকরি সামলাতে সামলাতে ক্রিকেট নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন ধোনি। ভিভিএস লক্ষ্মণের আত্মজীবনী থেকে জানা গেল, বাস চালানোটাও মহেন্দ্র সিং ধোনির আয়ত্তে।

টিটির মতো বাস চালানোটা অবশ্য কোনো কালেই ধোনির পেশা ছিল না। ২০০৮ সালে নেহাত শখের বসে টিমবাস চালিয়েছিলেন তৎকালীন ভারত অধিনায়ক। নিজের লেখা বইয়ে সেই কাহিনীই তুলে ধরেছেন ধোনির এক সময়ের সতীর্থ লক্ষ্মণ।

২০০৮ সালের ঘটনা। লক্ষ্মণের ১০০তম টেস্ট। নাগপুরে ভারতের প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া। ওই সময়ই ধোনি বাস চালিয়েছিলেন।

‘আমার জীবনের চিরস্থায়ী স্মৃতির একটি হচ্ছে ধোনির বাস চালানোর ঘটনা। আমার শততম টেস্টে নাগপুরে হোটেল পর্যন্ত সে বাস চালিয়েছিল। নিজের চোখকে বিশ্বাস করতে পারছিলাম না,’ আত্মজীবনীতে লিখেছেন লক্ষ্মণ।

২০১৪ সালে টেস্ট থেকে অবসর নিলেও সীমিত ওভারের ক্রিকেট চালিয়ে যাচ্ছেন ধোনি। তাকে ‘অতুলনীয়’ আখ্যা দিয়ে লক্ষ্মণ বইয়ে লিখেছেন, ‘মাহির সঙ্গে কারো তুলনা হয় না। খুব ঠাণ্ডা মেজাজের মানুষ। কখনো তাকে খুব একটা হতাশ দেখিনি।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here