একাদশ সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু হওয়া অত্যন্ত জরুরি। এ নির্বাচন সুষ্ঠু না হলে তরুণরা বিপদগামী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার।

আজ সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও গ্রহণযোগ্য করার আহ্বান জানিয়ে সুজন আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

সংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সুজন সম্পাদক বলেন, একাদশ সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠান নিয়ে সংশয় রয়েছে। অতীতেও দলীয় সরকারের অধীনে প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন হয়েছে। তাই এই ৩০শে ডিসেম্বরের নির্বাচন দলীয় সরকারের অধীনে যাতে প্রভাবিত না হয় সেজন্য নির্বাচন কমিশনকে সঠিক ভূমিকা রাখার আহ্বান জানায় নাগরিক সংগঠন সুজন।

অনুষ্ঠানে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সুজনের কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী দিলীপ কুমার সরকার। ইসিকে উদ্দেশ্য করে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, মনোনয়নপত্রের সঙ্গে প্রার্থীর হলফনামা ও আয়কর বিবরণী প্রকাশ এবং তা ওয়েবসাইটে দিতে হবে। নির্বাচনী প্রচারণার ক্ষেত্রে কোনো সাংসদ যাতে বিশেষ কোনো সুবিধা না পায় সে দিকে লক্ষ্য রাখার আহ্বান জানায় সুজন।

ইসিকে আহ্বান জানিয়ে সুজন জানায়, নির্বাচনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সহ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিরপেক্ষতা বজায় রাখতে হবে। তারা কোনো কারসাজীর সঙ্গে জড়িত থাকলে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থাও করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে গণমাধ্যমকে উদ্দেশ করে সুজন জানায়, গণমাধ্যম হলো ইসির সহায়ক শক্তি। গণমাধ্যমের ওপর বিধি-নিষেধ তুলে দিয়ে তাদেরকে সহায়ক শক্তি হিসেবে কাজ করার সুযোগ করে দিতে হবে। লিখিত বক্তব্যে নির্বাচন সুষ্ঠ, শান্তিপূর্ণ ও অংশগ্রহণমুলক করতে সরকার, রাজনৈতিক দল, প্রার্থী ও ভোটারের প্রতি বিশেষ ভূমিকা রাখার আহ্বান জানানো হয় সুজনের পক্ষ থেকে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here