২০১৮’র বিশ্বকাপ পর্তুগালের সঙ্গে যৌথভাবে আয়োজন করতে চেয়েছিল স্পেন। কিন্তু, নিলামে দুই দেশকে হারিয়ে গত বিশ্বকাপের আয়োজক হয়েছিল রাশিয়া। আবারো পর্তুগালকে সঙ্গী করে স্পেন বিশ্বকাপ আয়োজন করতে চাইছে। এবার শুধু পর্তুগাল নয়, প্রতিবেশী দেশ মরক্কোকেও সঙ্গী হিসেবে চেয়েছে স্পেন। সেটি ২০৩০ বিশ্বকাপ আসর।

২০৩০ সালের বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজক হতে এমন আগ্রহের কথা জানিয়েছেন স্প্যানিশ প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজ। মরক্কোর রাজধানী রাবাত সফরকালে তিনি এ নিয়ে কথা বলেছেন মরক্কোর প্রধানমন্ত্রী আল ওথমানি ও রাজা মোহাম্মদের সঙ্গে।

এ প্রসঙ্গে সানচেজ বলেন, আমি মরক্কো সরকারের সঙ্গে এই যৌথ আয়োজনের প্রস্তাবটি রেখেছি।

যাতে করে ২০৩০ বিশ্বকাপ আয়োজক হতে পারে স্পেন, পর্তুগাল ও মরক্কো। আমরা একসঙ্গে কাজ করবো। এর জন্য দরকার পূর্ব প্রস্তুতি। মরক্কো সরকার আমার প্রস্তাব গ্রহণ করেছে। এবার পর্তুগিজ সরকারের সঙ্গে আমাদের বসা দরকার। আমরা তিন দেশই এটা নিয়ে কাজ করতে আগ্রহী। এর আগে ১৯৮২ সালে সবশেষ বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ ছিল স্পেন।

পর্তুগাল অবশ্য এর আগে কখনও বিশ্বকাপ আয়োজন করেনি। তবে, ২০০৪ সালে তারা ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের আয়োজক হয়েছিল। আর মরক্কো ২০২৬ বিশ্বকাপের আয়োজক হতে চাইলেও সেই বিশ্বকাপে যৌথভাবে আয়োজক হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, মেক্সিকো ও কানাডা। ১৯৮২ সালে স্পেন বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ইতালি।

তৃতীয়বারের মতো শিরোপা জিততে ফাইনালে তারা হারায় পশ্চিম জার্মানিকে। সেবার ২৪ দেশ নিয়ে আয়োজিত আসরে স্পেনের ১৪টি ভিন্ন শহরে ১৭টি ভেন্যুতে খেলাগুলো হয়েছিল। মোট ৫২টি ম্যাচ হয়েছিল স্পেন বিশ্বকাপে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here