রাজধানীর পল্টনে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি সমর্থকদের সংঘর্ষের ঘটনার ভিডিও ও ছবি থেকে সনাক্ত করে ছয়জনকে গ্রেফতার করেছে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

মঙ্গলবার ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) প্রধান ও ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম।

তিনি বলেন, মামলার তদন্ত-গোয়েন্দা তথ্য ও আসামিদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে- যারা এই হামলার পরিকল্পনা করেছে তাদের উদ্দেশ্য ছিল উসকানি দিয়ে পুলিশকে অ্যাকশনে যেতে বাধ্য করা। যেন তারা নেতাকর্মীদের ওপর পুলিশের অ্যাকশনের ও লাটিচার্জের ভিডিও দেখিয়ে বিভিন্ন মহলে রাজনৈতিক ফায়দা নিতে পারে।

মনিরুল ইসলাম বলেন, গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে প্রথমে রবিন পুলিশের পিকআপ ভ্যানে আক্রমণ করে, যা পরবর্তীতে পুড়িয়ে দেওয়া হয়। কোনো কোনো নেতার নির্দেশে পরিচয় লুকানোর জন্য তারা হেলমেট পরেছে। নির্দেশদাতাদের নামও বলেছে। পুলিশের ওপর হামলা করে রাজনৈতিক ফায়দা লুটার চেষ্টা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ফৌজদারী অপরাধীদের গ্রেফতারে কোনো বাধা নেই। তারা কোন দলের সেই পরিচয় মুখ্য নয়। ঘটনার দিন সহস্রাধিক লোকের উপস্থিতি থাকলেও ফৌজদারী অপরাধে জড়িতদের চিহ্নিত করে তাদের ধরা হচ্ছে।

এক প্রশ্নের জবাবে মনিরুল ইসলাম বলেন, সম্প্রতি মোহাম্মদপুরে সংঘর্ষের ঘটনার তদন্ত চলছে, গ্রেফতার হয়েছে। এরআগে হেলমেট পরে সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনার তদন্ত চলছে বলেও জানান তিনি।

গ্রেফতাররা হলেন- মো. এইচ কে হোসেন আলী, সোহাগ ভূঁইয়া, মো. আব্বাস আলী, মো. আশরাফুল ইসলাম রবিন, জাকির হোসেন উজ্জ্বল ও মাহবুবুল আলম।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here