ব্রিসবেনে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টুয়েন্টিতে হার দিয়ে সফর শুরু করেছে ভারত। স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে ১১ রান বেশি করেও ডিএল পদ্ধতিতে জয়ের খুব কাছে গিয়েও ৪ রানে হেরেছে তারা। এতে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেল স্বাগতিকরা।

জবাব দিতে নেমে শিখর ধাওয়ানের ঝড়ো ব্যাটিংয়ের পর দিনেশ কার্তিক ও ঋষভ প্যান্তের জুটিতে পেন্ডুলামের মতো ঝুলতে থাকে ম্যাচ। তবে শেষ পর্যন্ত মার্কাস স্টোইনিসের করা শেষ ওভারে পাল্টে যায় ম্যাচের দৃশ্যপট। শেষ ওভারে তার বোলিং নৈপুণ্যে ১৩ রান করতে ব্যর্থ হয় কোহলির দল। তাতেই জয়ের স্বাদ নিয়ে মাঠ ছাড়ে অস্ট্রেলিয়া।

ব্রিজবেনের গ্যাবায় বুধবার ১৭ ওভারে অস্ট্রেলিয়া করে ৪ উইকেটে ১৫৮ রান। এরপর দ্বিতীয় দফার শুরু হয় বৃষ্টি। পরে ১৭ ওভারে ভারতের লক্ষ্য দাঁড়ায় ১৭৪। কিন্তু দরিট থমকে যায় ১৬৯ রানে।

শেষ ওভারে দারুণ বোলিংয়ে স্টয়নিস নেন দুই উইকেট, প্রথম পাঁচ বলে দেন চার রান। শেষ বলে কুলদীপ যাদব চার মারেন, ভারত হারে চার রানে।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ২৪ রানের উদ্বোধনী জুটির পর ডার্সি শর্ট ফেরেন ৭ রানে। আরেক পাশে অ্যারন ফিঞ্চও খুঁজে পাননি গতি। ২৪ বল খেলে তিনি করেন ২৭ রান। তবে এক প্রান্ত আগলে রেখে রানের গতি বাড়ানোর চেষ্টা করেছিলেন  ক্রিস লিন। বাঁহাতি পেসার খলিল আহমেদের এক ওভারে তিন ছক্কা মারেন তিনি। আগ্রাসী এই ব্যাটসম্যান পরে আরেক ছক্কায় স্বাগত জানান বাঁহাতি স্পিনার ক্রুনাল পান্ডিয়াকে। ২০ বলে ৩৭ রান করা লিনকে ফিরতি ক্যাচে ফেরান চায়নাম্যান বোলার কুলদীপ। তবে অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস পেয়ে যায় দিশা। গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও মার্কাস স্টয়নিসের ব্যাটে ওঠে ঝড়। ৩৭ বলে ৭৮ রানের জুটি গড়েন দুজন। চার ছয়ে ২৪ বলে ৪৬ করেন ম্যাক্সওয়েল, স্টয়নিসের ব্যাটে আসে ১৯ বলে অপরাজিত ৩৩।

রান তাড়ায় ভারতের শুরুটা দারুণ ছিল। ৪.১ ওভারেই দলটির স্কোরবোর্ডে ৩৫ রান তোলেন দুই ওপোনার শেখর ধাওয়ান ও েরাহিত শর্মা। যদিো বেশ মন্থর ছিলেন রোহিত। শেষ পর্যন্ত এ ডানহাতি ৮ বলে ৭ রানে ফেরেন বেহরেনডর্ফ বলে। লোকেশ রাহুল ও বিরাট কোহলি টিকতে পারেননি বেশিক্ষণ। তাতে কিছুটা হলেও চাপে পড়ে। তবে এক প্রান্ত আগলে রেখে দাপটের সঙ্গেই সফরকারীদের অভিষ্ট লক্ষের পথেই রেখেছিলেন ধাওয়ান। এক সময় তার একার চেষ্টাও শেষ হয়। আউট হন ৪২ বলে ৭৬ রান করে।

শেষ ৪ ওভারে ভারতের যখন প্রয়োজন ৬০, লক্ষ্য মনে হচ্ছিল ভারতের ধরাছোঁয়ার বাইরে। কিন্তু অ্যান্ড্রু টাইয়ের এক ওভারে রিশাভ পান্ত ও দিনেশ কার্তিক মারেন একটি করে ছক্কা ও চার। ওভার থেকে আসে ২৫ রান। ম্যাচে আবার ফেরে প্রাণ। পরের দুই ওভারেও আসে রান। ৪.১ ওভারে দুজন গড়েন ৫১ রানের জুটি। তবে পান্তকে ফিরিয়ে আবার অস্ট্রেলিয়ার সম্ভাবনা জাগিয়ে তোলেন টাই। এরপর ১৩ বলে ৩০ রান করা কার্তিক ও ক্রুনালকে ফিরিয়ে শেষ ওভারে জয় নিশ্চিত করেন স্টয়নিস।

৪ ওভারে মাত্র ২৪ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা হয়েছেন অ্যাডাম জ্যাম্পা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here