ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস বলেছে, আরব দেশগুলোতে ইহুদিবাদী ইসরাইলি কর্মকর্তাদের সফর আল-আকসা মসজিদকে উপেক্ষা, ফিলিস্তিনি জাতির পিঠে ছুরি মারা এবং মুসলিম উম্মাহর প্রতি বিশ্বাসঘাতকতার শামিল। হামাসের মুখপাত্র সামি আবুজুহরি তাঁর ব্যক্তিগত টুইটার পৃষ্ঠায় দেয়া এক পোস্টে এ মন্তব্য করেছেন।

তিনি কুদস দখলদার ইহুদিবাদী ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার প্রক্রিয়া বন্ধ করতে আরব দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানান।

আবুজুহরি বলেন, ইহুদিবাদী ইসরাইল মুসলমানদের প্রধান শত্রু। আরব দেশগুলো এই দখলদার শক্তির কর্মকর্তাদের সংবর্ধনা জানালেও মুসলিম উম্মাহ কখনোই ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেবে না।

সাম্প্রতিক সময়ে পারস্য উপসাগরীয় আরব দেশগুলো তেল আবিবের সঙ্গে প্রকাশ্যে দহরম মহরম বাড়িয়ে দিয়েছে। ইহুদিবাদী ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু গত ২৫ অক্টোবর ওমান সফর করেন এবং তারপর একাধিক ইসরাইলি মন্ত্রী ওমান সফরে যান।

নেতানিয়াহু ওমান সফর শেষে দাবি করেন, আরো বেশ কয়েকটি আরব দেশ তেল আবিবের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর শুক্রবার জানিয়েছে, নেতানিয়াহু শিগগিরই বাহরাইন সফর করবেন।

সৌদি আরবের নেতৃত্বে কিছু আরব দেশ এমন সময় ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার চেষ্টা করছে যখন তেলআবিব ১৯৬৭ সালের পর থেকে অন্তত ৪২ হাজার ফিলিস্তিনিকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here