এইবারের মাঠ থেকে ৩-০ গোলের লজ্জার এক হার নিয়ে ফিরেছে রিয়াল। এই হারে আপাতত পয়েন্ট টেবিলের ছয়ে থাকলেও শঙ্কা আছে আট কিংবা নয়েও নেমে যাওয়ার! পয়েন্টে নিকটের প্রতিদ্বন্দ্বীরা যে রাতে মাঠে নামবে রিয়ালকে পেছনে ঠেলতে।

শনিবার  চলতি মৌসুমে অনেকদিন পর একসঙ্গে মাঠে নামলেন রিয়াল মাদ্রিদের চার রক্ষণ স্তম্ভ- সার্জিও রামোস, মার্সেলো, রাফায়েল ভারানে ও দানি কারভাহাল। প্রথম তিনজন ছিলেন শুরু থেকে। কারভাহাল নেমেছেন বদলি হিসেবে।

কিন্তু মৌসুমের শুরু থেকেই লস ব্লাঙ্কোসদের যে বেহালদশা, সেটা বদলানো না এতটুকুও। হাঁসফাঁস করতে করতে এইবারের মাঠে চলতি লা লিগার পঞ্চম হার দেখেছে রেকর্ড ১৩বারের ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নরা।

ম্যাচের ১৬তম মিনিটেই পেছনে পড়ে বার্ন্যাবুর ক্লাবটি। কিকের শট গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়া রুখে দিলেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি। ছুটে এসে দানি সেবাইয়োস ক্লিয়ার করতে গেলে বল আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার গনজালে এসকালান্তের পায়ে লেগে জালে জড়ায়। ভিএআরের সাহায্য নিয়ে গোলের বাঁশি বাজান রেফারি।

বিরতির পর  রিয়াল আসল ধাক্কাটা খায়। ৫২তম মিনিটে রিয়াল ডিফেন্ডার আলভারো ওদ্রিওসোলার পা থেকে বল কেড়ে মার্ক কুকুরেইয়া বাড়ান ডান দিকে। আর ফাঁকায় বল পেয়ে কোনাকুনি শটে ঠিকানায় পাঠান স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড সার্গে এনরিচ। এদিকে আর ৫৭তম মিনিটে অনায়াসে দলের তৃতীয় গোলটি করেন কিকে। পরে এই ধাক্কা সামলে আর ফেরা হয়নি রিয়ালের।

১৩ ম্যাচে ছয় জয় ও দুই ড্রয়ে রিয়ালের পয়েন্ট ২০। আর পঞ্চম জয় পাওয়া এইবারের পয়েন্ট ১৮।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here