ক্রিমিয়া উপদ্বীপে ইউক্রেনের নৌবাহিনীর তিনটি জাহাজ জব্দ করেছে রাশিয়া। এ ঘটনায় ইউক্রেনের ছয় কর্মকর্তা আহত হয়েছেন বলে কিয়েভ দাবি করেছে। ফলে দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা চরমে পৌঁছেছে।

ইউক্রেনের জাহাজ রাশিয়ার সীমান্তে প্রবেশ করায় সংকটের শুরু হয় বলে অভিযোগ করেছে মস্কো।  ইউক্রেনও উত্তেজনা ছড়ানোর জন্য রাশিয়াকে দোষারোপ করেছে।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট পেত্রো পোরোশেংকো বলেছেন, এ ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় তিনি পার্লামেন্টে সোমবার সামরিক আইন জারির ঘোষণার জন্য আহ্বান জানাবেন। তিনি রাশিয়ার এ আচরণকে ‘উম্মত্ত’ বলে বর্ণনা করেছেন।

অন্যদিকে রাশিয়া এ ব্যাপারে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের জরুরি বৈঠক আহ্বানের কথা জানিয়েছে।

ইউক্রেনের কর্মকর্তারা তাদের ছয় নাবিকের আহত হওয়ার কথা জানালেও রাশিয়া বলেছে এই সংখ্যা তিন জন।

কৃষ্ণ সাগর এবং ক্রিমিয়া প্রজাতন্ত্রের উপকূলে আজোভ সাগরে বিগত কয়েক মাস ধরে রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে উত্তেজনা ক্রমশ বাড়ছিল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here