শ্রীলংকার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা দেশটির ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহের নেতৃত্বাধীন সরকারের দুর্নীতির অভিযোগের তদন্তের জন্য একটি কমিশন নিয়োগ করবেন।

রোববার ফরেন করেসপন্ডেন্টস অ্যাসোসিয়েশনকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি একথা বলেন।

সিরিসেনা বলেন, তিনি বিক্রমাসিংহকে অপসারণ করে তার স্থলে সাবেক প্রেসিডেন্ট মাহিন্দা রাজাপাকসেকে নিয়োগ করে সংবিধান লংঘন করেননি। সাবেক সরকার দুর্নীতিতে জড়িত ছিল বলে তিনি অভিযোগ করেন। খবর বার্তা সংস্থা সিনহুয়া’র।

প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘নতুন কমিশন ২০১৫ সালে নতুন সরকার নিয়োগ দেয়ার পর থেকে যেসব দুর্নীতি ও জালিয়াতি হয়েছে তার তদন্ত করবে। আমি নিশ্চিত তদন্তে ওই সময়ের বহু দুর্নীতির চিত্র বেরিয়ে আসবে।’

প্রেসিডেন্ট আরো বলেন, মাহিন্দা রাজাপাকসের নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে না পারলেও তিনি বিক্রমাসিংহকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পুনঃনিয়োগ দিবেন না। তিনি বলেন, ‘এমন একজনকে নিয়োগ দেবো, যিনি যোগ্যতার সাথে দায়িত্ব পরিচালনা করতে পারবেন এবং যার অর্থনৈতিক নীতির ফলে দেশের কল্যাণ হবে।’

সিরিসেনা মনে করেন, শ্রীলংকার বর্তমান পরিস্থিতি বড় ধরনের সংকটজনক নয়, দেশের স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় এটা খুব একটা প্রভাব ফেলবে না। খুব শিগগিরই এই চলমান রাজনৈতিক অস্থিরতার সমাপ্তি ঘটবে বলে তিনি আশ্বস্ত করেন।

উল্লেখ্য, গত ২৬ অক্টোবর বিক্রমাসিংহের বরখাস্তের পর থেকে শ্রীলংকায় বড় ধরনের রাজনৈতিক সংকট চলছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here