সৌদি আরবের যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমানের সফরের বিরুদ্ধে তিউনিশিয়ায় টানা দ্বিতীয় দিনের মতো বিক্ষোভ হয়েছে।

গতকাল (মঙ্গলবার) রাজধানী তিউনিসের হাবিব বুর্গিবা স্কোয়ারে শত শত মানুষ বিক্ষোভ করেছেন। বিক্ষোভকারীরা এ সময় সৌদি যুবরাজের বিরুদ্ধে নানা স্লোগান দেন। তাদের হাতে হাতে ছিল বিভিন্ন ধরণের প্ল্যাকার্ড। বিক্ষোভকারীরা বলছেন, একজন ভয়ানক খুনিকে দেশে স্বাগত জানাতে পারি না।

গতকালের বিক্ষোভে অংশ নিয়েছিলেন দেশটির বিখ্যাত মানবাধিকার কর্মী অ্যারোস। তিনি বলেছেন, টানা দুই দিনের বিক্ষোভেই অংশ নিয়ে মুহাম্মাদ বিন সালমানের সফরের বিরোধিতা করেছি। অ্যারোস আরও বলেছেন, বিন সালমান একজন ভয়ানক খুনি। সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে নির্মমভাবে হত্যা করেছেন তিনি।

বিক্ষোভকারীদের আরও অনেকেই বলেছেন, সৌদি যুবরাজ নিজের ভাবমর্যাদা উদ্ধারের জন্য তিউনিশিয়া সফর করছেন। তার মতো খুনির তিউনিশিয়ায় আসার অধিকার নেই।

গতকাল (মঙ্গলবার) থেকে সৌদি যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমান তিউনিশিয়া সফর শুরু করেছেন। আগামী শুক্রবার তিনি দেশটির প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করবেন বলে কথা রয়েছে।

তিউনিশিয়ার পতিত স্বৈরশাসক জেইনাল আবেদিন বিন আলী ২০১১ সাল থেকে সৌদি রাজপরিবারের আশ্রয়ে রয়েছেন। স্বৈরশাসককে আশ্রয় দেওয়ার কারণেও তিউনিশিয়ার জনগণ সৌদি রাজপরিবারকে ঘৃণা করে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here