বলিউডের নবদম্পতি রণবীর সিং ও দীপিকা পাড়ুকোন। ১৪ ও ১৫ নভেম্বর ইতালির লেক কোমোতে বিয়ে হয় এ তারকা জুটির। গতকাল ভারতের মুম্বাইয়ে হয় এ দম্পতির দ্বিতীয় বিবাহোত্তর সংবর্ধনা। এক সাক্ষাৎকারে রণবীর বলেছিলেন, অনেক আগেই বিয়ের জন্য মুখিয়ে ছিলেন তিনি। কিন্তু অপেক্ষা করছিলেন দীপিকার ‘হ্যাঁ’ শুনতে।

‘পদ্মাবত’ তারকা রণবীর সিং আরো বলেছেন, সম্পর্কের ছয় মাসের মধ্যেই তিনি বুঝে যান যে দীপিকাই হবে তাঁর সন্তানের মা।

‘তিন বছর ধরে আমি সিরিয়াসলি বিয়ের কথা ভাবছি। শুধু অপেক্ষায় ছিল, কখন সে বলবে, ঠিক আছে,’ বলেন রণবীর।

জনপ্রিয় ফ্যাশনবিষয়ক ম্যাগাজিন ফিল্মফেয়ারকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রণবীর বলেন, ‘আমি একদম প্রস্তুত ছিলাম। শুধু দীপিকার প্রস্তুত হওয়ার অপেক্ষায় ছিলাম। তাঁর সিদ্ধান্তেই তা হবে। আমি একদম প্রস্তুত ছিলাম।’

‘বাজিরাও মাস্তানি’ তারকা রণবীর জানান, দীপিকার ইচ্ছেতেই তাঁরা ইতালির লেক কোমোতে বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন। ‘বিয়ে নিয়ে তাঁর যা ইচ্ছে ছিল, সবই বোঝার চেষ্টা করেছি। যা সে চেয়েছিল, ঠিক তা-ই করা হয়েছে। আর সে এটা ডিজার্ভ করে,’ দীপিকাই তাঁর জীবনে সুখের জোয়ার এনেছেন বলেও মন্তব্য করেন এ অভিনেতা।

রণবীর সিং আরো বলেন, সম্পর্কের ছয় মাসের মধ্যেই দীপিকার মতের ব্যাপারে নিশ্চিত হয়েছিলেন তিনি। তবে এর পরও ছয় বছর ধরে চুটিয়ে প্রেম করেন তাঁরা। বিয়ের জন্য দীর্ঘ অপেক্ষা ছিল রণবীরের।

‘আমি খুব ভালোভাবেই জানতাম, এই মেয়েটিকেই আমি বিয়ে করতে যাচ্ছি। এই সেই মেয়ে, যে আমার বাচ্চার মা হবে,’ বলেন রণবীর।

গত ২১ নভেম্বর দীপিকার জন্মশহর বেঙ্গালুরুতে প্রথম বিবাহোত্তর সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। দুটো বিবাহোত্তর সংবর্ধনা ছাড়াও রণবীরের বোন রিতিকা একটি পার্টির আয়োজন করেন। আগামী ৩ ডিসেম্বর বলিউডের বন্ধুদের জন্য তৃতীয় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

এদিকে দীপবীর শাদি মোবারকের পর এখন সবাই প্রিয়াঙ্কা-নিকের বিয়ের জ্বরে ভুগছেন। মার্কিন গায়ক নিক জোনাসের সঙ্গে সাতপাকে বাঁধা পড়ছেন বিশ্বতারকা প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। ভারতের যোধপুরের উমেদ ভবন প্রাসাদে আগামী ২ ডিসেম্বর হিন্দু রীতিতে ও ৩ ডিসেম্বর খ্রিস্টান রীতিতে বিয়ের আসরে বসছেন প্রিয়াঙ্কা-নিক।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here