পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, ইসলামাবাদ সকল ক্ষেত্রে তেহরানের সঙ্গে সম্পর্ক শক্তিশালী করতে চায়।

তিনি শুক্রবার ইসলামাবাদে ইমরান খান সরকারের ১০০ দিন পূর্তি উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তৃতায় এ আহ্বান জানান। ইরানকে পাকিস্তানের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রতিবেশী হিসেবে উল্লেখ করে কোরেশি বলেন, ইরানের সঙ্গে দীর্ঘ সীমান্তকে শান্ত ও স্থিতিশীল করতে ইসলামাবাদ বদ্ধপরিকর।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইমরান খানের নেতৃত্বাধীন পিটিআই সরকার ইরানসহ সবগুলো প্রতিবেশেী দেশের সঙ্গে সম্পর্কের উন্নয়নকে পররাষ্ট্রনীতির মূল লক্ষ্যে পরিণত করেছে।

একইসঙ্গে তিনি আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতার স্বার্থে ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নেরও আগ্রহ প্রকাশ করেন। শাহ মেহমুদ কোরেশি বলেন, সম্প্রতি দু’দেশের মধ্যে কার্তাপুর ক্রসিং চালু করার ঘটনা ছিল পাক-ভারত সম্পর্ক উন্নয়নের পথে এক ধাপ অগ্রগতি।

পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার বক্তৃতায় চীনকে দীর্ঘমেয়াদে পাকিস্তানের কৌশলগত মিত্র বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সাম্প্রতিক চীন সফর অত্যন্ত সফল হয়েছে এবং দু’দেশের যৌথ উদ্যোগে নির্মাণাধীন চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডোর বা সিপিইসি দ্রুত বাস্তবায়নের তাগিদ দেয়া হয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here