একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে ড. কামাল হোসেন নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নাশকতা-সহিংসতার ছক কষছে বলে অভিযোগ করেছে আওয়ামী লীগ।

নির্বাচনকে সামনে রেখে শঙ্কা-উদ্বিগ্নতার কথা উড়িয়ে দিয়ে দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘এই নির্বাচনে তারা হেরে যাবে বলেই শঙ্কার কথা বলছে। মানুষ শান্তিপূর্ণ নির্বাচন চায়। কেউ হট্টগোল করার চেষ্টা করলে মানুষই বাধা দেবে।’

শনিবার রাজধানীর ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগের সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

কাদের বলেন, ‘বিএনপি নির্বাচন নিয়ে যে শঙ্কার কথা বলছে, সেটি তাদের অভ্যাস। তারা ভোট গণনা পর্যন্ত অভিযোগই করতে থাকবে। নালিশ করা তাদের পুরনো অভ্যাস। ভাঙা রেকর্ড তারা বাজাবেই। এ নিয়ে আওয়ামী লীগের মাথাব্যাথা নেই। নির্বাচনী পরিবেশ নষ্ট করে আওয়ামী লীগের লাভ কী?’

তিনি বলেন, নির্বাচনী পরিবেশ শুরুতেই নষ্ট করেছে বিএনপি। এখন আর সেই অবস্থা নেই। এখানকার নির্বাচনী পরিস্থিতি নিয়ে বিদেশিরাও আস্থা পাচ্ছেন।

‘জামায়াত আর বিএনপির সম্পর্ক আদর্শিক’ উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াতের সম্পর্ক আদর্শিক হওয়ায় নিষিদ্ধ জামায়াতে ইসলামীকেও তারা ছাড়তে পারে না।’ ‘আগে মনে করা হতো ব্যাপারটা কৌশলগত। এখানে আসলে ‍কৌশলের ব্যাপার বলে কিছু নেই। তাদের নীতি, আদর্শ ও লক্ষ্যই এক।’

তিনি বলেন, ‘নির্বাচনকে সামনে রেখে কোনো দলকে নিষিদ্ধ করার বিষয়টা আদালতের। এখন ব্যাপারটা সরকারের হাতে নেই।’

নির্বাচনে নিজেদের জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী কাদের বলেন, ‘শেখ হাসিনার উন্নয়ন আর গণতন্ত্রের ওপর নির্ভর করে জনগণ আওয়ামী লীগকেই ভোট দেবে। আমাদের বিশ্বাস- সারাদেশে নৌকার গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। বিজয়ের মাসে আওয়ামী লীগই জয়ী হবে।’

কাদের বলেন, বিজয়ী মুডে আছে আওয়ামী লীগ। বিএনপি নেতারা অভিযোগের ভিত্তিই দেখাতে পারছে না। কমিশন তাদের দাবি আমলে নেবে কেন?

তিনি আরও বলেন, বিএনপি লাখ লাখ ডলার খরচ করে লবিস্ট রেখেও যুক্তরাষ্ট্রের মন গলাতে পারছে না। ‘আসলে, অসত্যের সাথে কেউ থাকে না। গণতান্ত্রিক ব্যবস্থায় সবার আস্থা আছে।’

‘জগাখিচুড়ি মার্কা ঐক্যফ্রন্টের’ বিরুদ্ধে এবার ভোট বিপ্লব হবে বলেও দাবি করেন কাদের।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here