পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, তার দেশ রাজনৈতিক উপায়ে আফগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ রয়েছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চিঠি লিখে আফগান যুদ্ধের অবসানের লক্ষ্যে পাক প্রধানমন্ত্রীর সাহায্য চাওয়ার পর এ প্রতিক্রিয়া জানালেন ইমরান খান।

গতকাল (বুধবার) ইসলামাবাদে আফগানিস্তান বিষয়ক আমেরিকার বিশেষ দূত জালমাই খালিলজাদের সঙ্গে এক সাক্ষাতে পাক প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, আফগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠিত হলে তা পাকিস্তানের স্বার্থ রক্ষা করবে।

সম্প্রতি ইমরানকে লেখা চিঠিতে ট্রাম্প আফগানিস্তানের তালেবানকে সেদেশের সরকারের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চাপ সৃষ্টি করার জন্য ইসলামাবাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন। তালেবান আমেরিকার সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি হলেও কাবুল সরকারের সঙ্গে বৈঠকে বসতে রাজি নয়।

তালেবানকে আলোচনার টেবিলে নেয়ার ব্যাপারে আলোচনার জন্য খালিলজাদ এখন পাকিস্তান সফর করছেন। খালিলজাদ দুই মাস আগে আফগান বিষয়ক বিশেষ প্রতিনিধি নিযুক্ত হওয়ার পর এ পর্যন্ত কাতারে তালেবান প্রতিনিধিদের সঙ্গে দু’দফা বৈঠক করেছেন।

সম্প্রতি কোয়েটায় তালেবানের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছে যে, কাতার থেকে তাদের দপ্তরের একটি প্রতিনিধিল ইসলামাবাদ সফর করেছে। সূত্রটি বলেছে, সাম্প্রতিক সময়ে আফগান শান্তি বিষয়ক যেসব আলাপ-আলোচনা হচ্ছে তা থেকে পাকিস্তান সরকারকে দূরে সরিয়ে রাখা হয়েছে বলে ইসলামাবাদ মনে করছে। কাজেই আফগান শান্তি প্রক্রিয়ায় নিজেকে সংশ্লিষ্ট করার লক্ষ্যে তালেবানের ওই প্রতিনিধিদলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল ইসলামাবাদ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here