ইরানের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় বন্দরনগরী চবাহারে পুলিশ সদর দফতরের কাছে একটি শক্তিশালী গাড়ি বোমা বিস্ফোরণ হয়েছে। এতে কয়েকজন ব্যক্তি হতাহত হয়েছেন বলে প্রাথমিক খবরে জানা গেছে।

সন্ত্রাসীরা দেশটির দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় সিস্তান-বালুসিস্তান প্রদেশের চবাহার শহরে পুলিশের সদর দপ্তরে বৃহস্পতিবার সকালে বোমা ভর্তি একটি গাড়ির মাধ্যমে বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে বলে স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছে। নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা পরিস্থিতির দ্রুত নিয়ন্ত্রণ নেয়ায় সন্ত্রাসীরা তাদের লক্ষ্যে পৌঁছতে ব্যর্থ হয়েছে বলে প্রদেশটির গভর্নর আহমেদ আলী মোয়াহেবেতি জানিয়েছেন। এদিকে, বোমা বিস্ফোরণের পর ঘটনাস্থলে বিক্ষিপ্তভাবে গুলি বর্ষণের ঘটনা ঘটেছে বলে কয়েকটি সূত্রের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা ইরনা জানিয়েছে। হতাহতের সংখ্যা নিয়ে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া যাচ্ছে।

গভর্নর মোয়াহেবেতি জানিয়েছেন, বোমা বিস্ফোরণে দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছে। এছাড়া এ হামলায় বহু বেসামরিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন।হামলায় জড়িত সন্ত্রাসীকে হত্যা করা হয়েছে বলে নিরাপত্তা বিষয়ক ডেপুটি গভর্নর হাদি মারাশি জানিয়েছেন। মারাশি জানান, হামলায় নিহত দুই ব্যক্তি পুলিশের কর্মকর্তা। স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, সন্ত্রাসী হামলায় অন্তত ২৫ ব্যক্তি আহত হয়েছে এবং এদের মধ্যে তিন জনের অবস্থা গুরুতর। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, শহরের পরিস্থিতি স্বাভাবিক অবস্থানে ফিরে এসেছে এবং নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা এখন পরিস্থিতির প্রতি কড়া নজর রাখছে।

এদিকে, ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ডবাহিনীর স্থল ইউনিটের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল পাকপুর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। সন্ত্রাসীদের এ হামলাকে বিচ্ছিন্ন ঘটনা হিসেবে আখ্যায়িত করে তিনি বলেন, এ ধরনের হামলার মাধ্যমে তারা তাদের কোনো লক্ষই অর্জন করতে সক্ষম হবে না। তিনি বলেন, পরিস্থিতি এখন পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। শহরে আইআরজিসি’র সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে। এখন তারা পূর্ণ সতর্কাস্থায় রয়েছেন। এখনো কোনো দল বা গোষ্ঠী হামলার দায়িত্ব স্বীকার করে নি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here