মেলিয়াকে প্রথম লেগের মতো দ্বিতীয় লেগেও উড়িয়ে দিয়ে স্প্যানিশ কাপের শেষ ষোলোতে উঠেছে রিয়াল মাদ্রিদ। জোড়া গোল করেছেন ইসকো ও অ্যাসেনসিও। একটি করে গোল করেন সানচেজ ও ভিনিসিউস। পেনাল্টি থেকে মেলিয়ার একমাত্র গোলটি করেন কাসেমি।

প্রথম লেগে ৪-০ গোলে জেতা রিয়াল বৃহস্পতিবার নিজেদের মাঠসান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে জিতেছে ৬-১ ব্যবধানে।

স্প্যানিশ কাপের তৃতীয় সারির দল মেলিয়ার বিপক্ষে রিয়াল কোচ সান্তিয়াগো সোলারি দলের সব বড় তারকাকে বাইরে রেখে মাঠে নামে। গোল করতে তাদের অপেক্ষা করতে হয়েছিল ৩৩ মিনিট পর্যন্ত। গোল পোস্টের বেশ দূর থেকে বল নিয়ে এগিয়ে দুই জনকে কাটিয়ে জোরালো শটে গোলরক্ষক ফাঁকি দেন মার্কো অ্যাসেনসিও।

১-০ গোলে এগিয়ে থেকে রিয়াল ব্যবধান দিগুণ করেন ৩৫তম মিনিটে। স্প্যানিশ এই (অ্যাসেনসিও) উইঙ্গার ভিনিসিউস জুনিয়রের কাছ থেকে বল পেয়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ২০ গজ দূর থেকে নেওয়া জোরালো শটে।

২-০ গোলে এগিয়ে থেকে আবারও গোল করে রিয়াল। ম্যাচের ৩৯তম মিনিটে রিয়াল তিন নম্বর গোল পায়। এবারও অ্যাসেনসিও। তবে এবার তিনি নিজে গোল করেননি। গোল করিয়েছেন সোলারির একাদশে নতুন জায়গা পাওয়া সানচেজকে দিয়ে।

প্রথমার্ধের খেলা শেষ হয় ৩-০ গোলে। এগিয়ে থেকে রিয়ালের আত্মবিশ্বাস বেড়ে যায়। বিরতিত থেকে ফিরে মেলিয়ার রক্ষণে ফের হামলা চালায় অ্যাসেনসিও-ইসকোরা।

ম্যাচের ৪৭তম মিনিটে ব্যবধান বাড়ান সোলারির অধীনে প্রথমবারের মতো শুরুর একাদশে জায়গা পাওয়া ইসকো। ৭৫তম মিনিটে গোল করে তরুণ ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড ভিনিসিউস। এতেই ৫-০ গোলে এগিয়ে যায় রিয়াল।

তবে খালি হাতে ফেরেদি প্রতিপক্ষ মেলিয়া। ম্যাচের ৮১তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে একটি গোল শোধ করে উত্তর আফ্রিকায় স্পেনের স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল মেলিয়ার দলটি। গোলটি করেন কাসেমির।

প্রতিপক্ষের করা গোলটি শুধু ব্যবধানই কমিয়েছে। বরং মিনিট দুয়েক পর উল্টো গোল খেয়ে বসে তারা। গোলটি করেন রিয়ালের মাঝমাঠের ভ্রমরা ইসকো।

এই জয়ে দুই লেগ মিলিয়ে ১০-১ গোলের অগ্রগামিতায় শেষ ষোলোতে জায়গা করে নিল স্প্যানিশ জায়ান্টরা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here