সংযুক্ত আরব আমিরাতের কাছে বাজেভাবে হেরে ইমার্জিং এশিয়া কাপ শুরু করে কি লজ্জাই না দিয়েছে সোহানের নেতৃত্বধীন অনূর্ধ্ব-২৩ দল। ৯৭ রানে হারের সেই ধকল কাটিয়ে ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে জয়ে ফিরেছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দল।

 ‘বি’ গ্রুপের খেলায় করাচীতে ২৬ রানে হারিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দল হংকংকে। এই ম্যাচেও বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দলের বোলিং ভুগিয়েছে যথেস্ট। টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দল মোসাদ্দেকের সেঞ্চুরিতে ( ৮৬ বলে ৮ চার ৩ ছক্কায় ১০০) ২৮৬/৮ স্কোর করে।

করাচিতে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান। এদিনও শুরুটা ভালো হয়নি বাংলাদেশ ইমার্জিং টিমের। মাত্র ৯ রানেই ফিরেযান ওপেনার মিজানুর রহমান। এরপর দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে জাকির হোসেন ও নাজমুল হোসেন শান্ত ৮৭ রান যোগ করে দলকে বড় স্কোরের স্বপ্ন দেখালেও ৮৯ থেকে ৯৯ রানের মধ্যে আরও ২ উইকেট হারালে ব্যাটিং বিপর্যয়ের শঙ্কায় পড়ে বাংলাদেশ।

তবে আগের ম্যাচে শূন্য করা মোসাদ্দেকের ৮৬ বলে দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে হংকংকে বড় লক্ষ্য ছুড়ে দেয় বাংলাদেশ। পঞ্চম উইকেট ইয়াসির আলীর সঙ্গে ৯০ রানের জুটি গড়েন তিনি।

জবাবে বিশাল এই লক্ষ্য তারা করতে নেমে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দলের বোলারদের ভালোই নাস্তানাবুদ করেছে হংকং। তৃতীয় উইকেট জুটিতে নিজাকাত খান ও বাবর হায়াত দুজনের ব্যাট থেকে আসে ১০১ রান। তবে ৯২ করা নিজাকাত কে বোল্ড আউট করে প্যাভিলিয়নের পথ দেখান নাঈম হাসান। এরপর হংকং খুব বেশি সুবিধা না করতে পারায় নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৫৮ রানে থামে হংকংয়ের ইনিংস। তাতে বাংলাদেশ ইমার্জিং দল ২৮ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ ইনিংস: ৫০ ওভারে ২৮৬/৮ (মিজানুর ৮, জাকির ৪৯, শান্ত ৩৬, মোসাদ্দেক ১০০, ইয়াসির ৪৫, আফিফ ২০, সোহান ১৭, শরিফুল ৫, নাঈম ০*, তানভীর ২*; আফজাল ০/৩৩, নওয়াজ ২/৪৮, এহসান ১/৫৯, তানভীর ১/২০, গাজানফার ১/৬৪, এজাজ ৩/৬২)

হংকং ইনিংস: ৫০ ওভারে ২৫৮/৭ (নিজাকাত ৯২, এজাজ ১৫, কাপুর ১৫, বাবর ৯১, ওয়াকাস ২, ওয়াসিফ ৩, আফজাল ৭, এহসান ১৪*, নওয়াজ ১*; তানভীর ১/৩৮, খালেদ ২/৬৯, শরিফুল ১/৫১, নাঈম ১/৪০, আফিফ ০/৩৭, মোসাদ্দেক ২/২৩)

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here