একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করবেন বুধবার (১২ ডিসেম্বর)।

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি জিয়ারতের মধ্য দিয়ে এ প্রচারণা শুরু হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক।

সোমবার (১০ ডিসেম্বর) দুপুরে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান তিনি।

নানক বলেন, তফসিল ঘোষণার পর আগামী বুধবার (১২ ডিসেম্বর) সকালে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানানো এবং জিয়ারত শেষে নিজ এলাকায় একটি জনসভায় বক্তৃতা রাখবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। দুপুরে কোটালীপাড়ায় আরেকটি জনসভা শেষে নির্বাচনী প্রচারের কাজে দেশের বিভিন্ন জায়গায় নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করবেন তিনি। ইতোমধ্যে নির্বাচনী সকল ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে আওয়ামী লীগ।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে নানক বলেন, আমরা চাই বিএনপি নির্বাচনে থাকুক। তবে নির্বাচনে তারা জনগণের ভোট পাবে না এবং নিশ্চিত পরাজয় জেনেই নির্বাচন বানচালের জন্য নাশকতার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। আওয়ামী লীগ দেশের জনগণকে সঙ্গে নিয়ে তাদের সকল ষড়যন্ত্র প্রতিরোধ করবে।

এ সময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের আরেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক , বিএম মোজাম্মেল হক, আহমদ হোসেন, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. আফজাল হোসেন, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী , উপদপ্তর সম্পাদক ব্যরিস্টার বিপ্লব বড়ুয়াসহ অনেকে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here