সৌদি যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমানের সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জামাই ও হোয়াইট হাউসের শীর্ষ উপদেষ্টা জারেড কুশনারের কী সম্পর্ক রয়েছে তা খতিয়ে দেখার পরিকল্পনা করেছেন মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের পররাষ্ট্র সম্পর্ক বিষয়ক কমিটির ভবিষ্যত নেতা সিনেটর এলিয়ট এঙ্গেল।

সৌদি আরবের বিষয়ে মার্কিন সরকারের নীতি কী তাও তদন্ত করবেন বিরোধী ডেমোক্র্যাটিক দলের এই নেতা। পররাষ্ট্র সম্পর্ক বিষয়ক কমিটির ডেমোক্র্যাট দলের মুখপাত্র টিম মালভেই গতকাল (সোমবার) সিএনএন-কে বলেন, সৌদি আরবের সঙ্গে আমেরিকার নীতির আপদ-মস্তক পর্যালোচনা করার বিষয়ে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ এঙ্গেল। সাংবাদিক জামাল খাশাগি হত্যার ঘটনায় আমেরিকার অবস্থান কী ছিল তাও পর্যালোচনা করা হবে।

কুশনার ও বিন সালমানের সম্পর্ক নিয়েও কী তদন্ত করা হবে- এমন এক প্রশ্নের জবাব তিনে বলেন, তদন্তের মধ্যে সবই থাকবে। আাগমী জানুয়ারি মাসের প্রথম দিকে প্রতিনিধি পরিষদের পররাষ্ট্র সম্পর্ক বিষয়ক নতুন কমিটি গঠন করা হবে। সেই কমিটির প্রধান হবেন এলিয়ট এঙ্গেল।

গত সপ্তাহে নিউ ইয়র্ক টাইমস এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, খাশোগি হত্যার বিষয়ে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে কুশনার সৌদি যুবরাজের সুরক্ষা দেয়ার ক্ষেত্রে সবচেয়ে শক্ত অবস্থান নিয়েছেন। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, খাশোগি হত্যার পর সারা বিশ্বে সৃষ্ট ঝড় কীভাবে থামাতে হবে তা নিয়েও কুশনার যুবরাজ বিন সালমানকে পরামর্শ দিয়েছেন।

 

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here