রিয়াল মাদ্রিদের জার্সিতে গত মৌসুমে দুর্দান্ত খেলেছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। জাতীয় দলের হয়েও নিজেকে মেলে ধরেছিলেন তিনি। কিন্তু ব্যালন ডি’অরের লড়াইয়ে সাবেক ক্লাব সতীর্থ লুকা মদ্রিচের পেছনে থেকে রানারআপ হন এই পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড। তাতে হতাশ নন সিআর সেভেন।  প্রতি বছর ব্যালন ডি’অরের দাবিদার তিনি। এজন্য আবারও কঠোর পরিশ্রম করছেন।

গত এক দশক ধরে ব্যালন ডি’অর রোনালদো ও লিওনেল মেসির মধ্যে সীমাবদ্ধ ছিল। অবশেষে তাদের আধিপত্যের ইতি টানেন মদ্রিচ। ২০০৭ সালে কাকা পুরস্কার জেতার পর সমান পাঁচবার করে বর্ষসেরা ফুটবলার নির্বাচিত হন সময়ের সেরা দুই ফুটবলার।

চলতি মৌসুমেও দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন রোনালদো। ২০১৮ সালে এ পর্যন্ত ক্লাব ও জাতীয় দল মিলে ৪৮ ম্যাচে ৪৫ গোল করেছেন পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড। দেল্লো স্পোর্তকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে পর্তুগালের ব্যালন ডি’অর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি, প্রতি বছর আমি ব্যালন ডি’অরের দাবিদার। আমি সেজন্য পরিশ্রম করি। তবে আমি না জিতলে সবকিছু শেষ হয়ে যায় না। সংখ্যা মিথ্যা বলে না। কিন্তু ভাববেন না যে না জিততে পারলে আমি কম সুখী। আমি হতাশ। কিন্তু জীবন চলতে থাকে। আর আমি এখনও কঠোর পরিশ্রম করবো।’

এবার ব্যালন ডি’অর জেতায় মদ্রিচকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন রোনালদো, ‘মদ্রিচকে অভিনন্দন। এটা তার প্রাপ্য। কিন্তু পরের বছর আমরা আবার একে অন্যের মুখোমুখি হবো। আর আমি তখনও সেখানে থাকতে সবকিছু করব।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here