সৌদি আরবের ভিন্নমতাবলম্বী প্রখ্যাত সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার পর লাশ টুকরো টুকরো করার সময় খুনিদের একজনকে বলতে শোনা গেছে, “আমি জানি কীভাবে কাটতে হয়।” খাশোগি হত্যার পর যে অডিও রেকর্ড পাওয়া গেছে তা থেকে এই তথ্য ফাঁস করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান।

গতকাল তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহরে এরদোগান আরো বলেন, তার সরকার এই তথ্য আমেরিকা, কানাডা, জার্মানি, ফ্রান্স ও কানাডাকে দিয়েছে। তিনি বলেন, “আমরা এসব দেশকে শুনিয়েছি যে, এক ব্যক্তি বলছে আমি জানি কীভাবে কাটতে হয়। এই লোক একজন সেনা। এসবই ওই অডিও রেকর্ডিংয়ে পাওয়া গেছে।”

তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, অডিও রেকর্ডিং থেকে পরিষ্কার বোঝা যাচ্ছে যে, সৌদি যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমানের ঘনিষ্ঠ লোকজনই ওই হত্যাকাণ্ডে জড়িত। তিনি জোর দিয়ে বলেন, “দোষী অপরাধীরা সবাই আমার চেনা।” জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে সৌদি আরব এ পর্যন্ত যেসব ব্যাখ্যা দিয়েছে তারও সমালোচনা করেন তিনি।

গত ২ অক্টোবর জামাল খাশোগিকে তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহরের সৌদি কন্স্যুলেট ভবনের ভেতরে হত্যা করা হয়। এ ঘটনার পরপরই সৌদি যুবরাজ বলেছিলেন, খাশোগি কন্স্যুলেট ভবন থেকে বেরিয়ে গেছেন। কিন্তু পরবর্তীতে প্রমাণ হয়ে যে, খাশোগিকে হত্যা করা হয়েছে। পরে সৌদি সরকার একথাও স্বীকার করেছে, ওই হত্যাকাণ্ড ছিল পরিকল্পিত। তুরস্ক এখন দাবি করছে, হত্যায় জড়িত ব্যক্তিদের বিচারের জন্য আংকারার হাতে তুলে দিতে হবে কিন্তু সৌদি আরব তাতে রাজি নয়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here