শ্রীলঙ্কায় চলমান সংকট নিরসনে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দেশটির বিতর্কিত প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে। শনিবার (১৫ ডিসেম্বর) তিনি জাতির উদ্দেশে দেওয়া এক ভাষণের মাধ্যমে এ ক্ষমতা ত্যাগ করবেন। রাজাপাকসে ছেলে নামাল রাজাপাকসের দেওয়া টুইট বার্তার বরাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে কাতার ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা।

প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশটির সংসদ সদস্য ও রাজাপাকসের ছেলে নামাল রাজাপাকসে শুক্রবার (১৪ ডিসেম্বর) এক টুইট বার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেন। সেখানে তিনি লেখেন, ‘দেশকে স্থিতিশীল করার স্বার্থে আমার বাবা প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়াবেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘জাতীয় স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করতে সাবেক প্রেসিডেন্ট রাজাপাকসে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। শনিবার জাতির উদ্দেশে ভাষণের পর তিনি প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়াবেন।’

এর আগে গত ২৬ অক্টোবর শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী পদ থেকে রনিল বিক্রমসিংহকে বরখাস্ত ও তার মন্ত্রিসভা বিলুপ্ত ঘোষণা করেন প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা। মূলত সেদিন রাতেই সাবেক প্রেসিডেন্ট মাহিন্দা রাজাপাকসেকে দেশের নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেন তিনি।

পরে পদচ্যুত প্রধানমন্ত্রী বিক্রমাসিংহের দল ইউনাইটেড ন্যাশনাল পার্টির (ইউএনপি) সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন থাকায় চাপের মুখে পড়েন সিরিসেনা ও রাজাপাকসে। এতে বিক্রমাসিংহের দল ইউনাইটেড ন্যাশনাল পার্টিসহ আরও দুটি দল প্রেসিডেন্টের এমন সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আদালতে আপিল করেন।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি শ্রীলঙ্কান সুপ্রিম কোর্ট সিরিসেনার সংসদ ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত বাতিল ও নির্বাচন স্থগিতের আদেশ দিলে আরও বিপাকে পড়েন রাজাপাকসে। সর্বোচ্চ আদালতের দেওয়া এমন রায়ের পর এক রকম নিরুপায় হয়েই এ পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here