ছদ্মবেশী মুক্তিযোদ্ধারা বিএনপি-ঐক্যফ্রন্টের ব্যানারে একত্রিত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

আজ রোববার বিজয় দিবসে ফেনী শহরে শহীদ স্মৃতিস্তম্ভে ফুল দিয়ে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো পর সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘নীল নকশা অনুযায়ী ঐক্যফ্রন্ট নিজেরা নিজেদের ওপর হামলা করে সরকারের ওপর এবং আওয়ামী লীগের ওপর দোষ চাপানোর অপচেষ্টায় মেতে উঠেছে। জনগণ তাদের এই চক্রান্ত বুজতে পেরেছে। আগামী ৩০ ডিসেম্বর নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে দেশের জনগণ আবার সমুচিত জবাব দেবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে যারা নিশ্চিত পরাজয় জেনে অপশক্তির সঙ্গে হাত মিলিয়েছে তারা জনগণের পক্ষ থেকে সাড়া না পেয়ে নিজেরা উস্কানিমূলক তৎপরতায় লিপ্ত হয়েছে। এতে সরকারের বা আওয়ামী লীগের কিছু করার নেই।

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নোয়াখালীতে ও ফরিদপুরে দুজন আওয়ামী লীগ কর্মী খুন হয়েছে উল্রেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এখন পর্যন্ত কোনও বিএনপি কর্মীকে প্রাণ দিতে হয়নি।

নির্বাচন প্রসঙ্গে বলেন, ‘যত চক্রান্তই হোক ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন হবেই হবে। ইনশাল্লাহ কোনও অপশক্তি নির্বাচনকে বানচল করতে পারবে না।’

তিনি আরো বলেন, আমরা মঙ্গাকে যেমন জাদুঘরে পাঠিয়েছি তেমনি আগামী পাঁচ বছরে বাংলাদেশে বেকার ও দারিদ্রকে জাদুঘরে পাঠানো হবে। বিগত ১০ বছরে বাংলাদেশে যে পরিবর্তন হয়েছে- ২০২৪ সালের মধ্যে বাংলাদেশ একটি উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হবে। সব চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করবে সরকার।

এসময় ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য জাহানারা বেগম সুরমা, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুর রহমান বিকম, ফেনী পৌর মেয়র হাজী আলাউদ্দিনসহ স্থানীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here