সারাদেশে নানা আনুষ্ঠানিকতায় উদযাপন করা হচ্ছে মহান বিজয় দিবস। দেশের জন্য জীবন উৎসর্গ করা জাতির বীর সন্তানদের চির স্মরণে রাখার অঙ্গীকার আর বিনম্র শ্রদ্ধায় ৪৮তম বিজয় দিবস উদযাপন করল বাংলাদেশ। বিনম্র শ্রদ্ধায় কৃতজ্ঞ জাতি ত্রিশ লাখ শহীদকে আরো একবার জানিয়ে দিল, তোমাদের স্মৃতি বাঙালির হৃদয়ের মণিকোঠা থেকে কখনো মুছে যাবে না।

পিরোজপুর : মঠবাড়িয়ায় ৪৭তম বিজয় দিবস উপলক্ষে ১০০০ ফুট দৈর্ঘ্যের লাল সবুজ পতাকা নিয়ে বিজয় শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলার মিরুখালী স্কুল অ্যান্ড কলেজের উদ্যোগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির প্রশাসনিক ভবনের সামনে ১০০০ ফুট দৈর্ঘ্যের এ লাল সবুজের পতাকা নির্মাণ করে বিজয় শোভাযাত্রার আয়োজন করে।

জয়পুরহাট : যথাযোগ্য মর্যাদায় জয়পুরহাটে মহান বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে। সকালে জয়পুরহাট জেলা স্টেডিয়ামে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও বেলুন উড়িয়ে দিনের কর্মসূচির উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাকির হোসেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার রশীদুল হাসান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান রকেট, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আমজাদ হোসেন প্রমুখ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসার মধ্যদিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মহান বিজয় দিবসের ৪৮তম পূর্তি উৎসব পালন করা হচ্ছে। বিজয় দিবসের প্রথম প্রহরে সূর্যদয়ের সঙ্গে সঙ্গে শহরের ফারুকী পার্কের পাশে ৩১বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসটির শুভ সূচনা করা হয়।
পরে শহীদ বেদীতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী। পরে জেলা প্রশাসনের পক্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ্-দৌলা খান, পুলিশের পক্ষে পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন খান, শহীদ বেদিতে শ্রদ্ধা জানানো হয়। পরে জেলা আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদের পাশপাশি বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুলেল শ্রদ্ধা জানানো হয়।

মৌলভীবাজার : বড়লেখায় যথাযথ মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস পালন করেছে উপজেলা আওয়ামী লীগ। দিসবটি উপলক্ষে নানা কর্মসূচির আয়োজন করে দলটি। রবিবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে পৌরশহরে বিশাল বিজয় শোভাযাত্রা বের করা হয়। এতে নেতৃত্ব দেন জাতীয় সংসদের সরকার দলীয় হুইপ ও স্থানীয় সাংসদ মো. শাহাব উদ্দিন।

চট্টগ্রাম : চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) যথাযোগ্য মর্যাদায় মহাসমারোহে ও আনন্দঘন পরিবেশে বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে মহান বিজয় দিবস পালন করা হয়েছে। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে শনিবার সন্ধ্যা থেকে বিশ্ববিদ্যালয় স্বাধীনতা স্মৃতিসৌধ, শহীদ মিনার ও স্মৃতিসৌধ ‘স্মরণ’সহ সকল গুরুত্বপূর্ণ ভবন দৃষ্টিনন্দন আলোকসজ্জায় সজ্জিত করা হয় এবং ১২.০১ মিনিটে বিউগল বাজিয়ে বিজয় দিবসের সূচনা লগ্নকে স্বাগত জানানো হয়।

রোববার ভোরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল মসজিদে মহান মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত এবং অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের স্ব-স্ব উপাসনালয়ে বিশেষ প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হয় এবং সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।

লক্ষ্মীপুর : বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে লক্ষ্মীপুরে উদযাপিত হচ্ছে ৪৮তম মহান বিজয় দিবস। দিবসটি উপলক্ষে রবিবার সকাল ৬টা ৩০ মিনিটে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্য দিয়ে বিজয় চত্বর স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল । এরপর বিজয় চত্বরে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন পর্যায়ক্রমে পুলিশ সুপার আ স ম মাহাতাব উদ্দিন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ থেকে মাহবুবুর রহমান, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম সালউদ্দিন টিপু, জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও পেশাজীবী ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা।

ঝালকাঠি : যথাযোগ্য মর্যাদা ও উৎসবমুখর পরিবেশে মহান বিজয় দিবস উদযাপিত হয়েছে। আজ রবিবার সকালে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পমাল্য অর্পণের মাধ্যমে স্বাধীনতার অমর সৈনিকদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক। পরে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সংগঠনের পক্ষ থেকেও শ্রদ্ধা জানানো হয়। সকাল ৮টায় শেখ রাসেল স্টেডিয়ামে পায়রা ও ফেস্টুন উড়িয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কর্মসূচি উদ্বোধন করেন ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক। পরে তিনি সম্মিলিত কুচকাওয়াজে সালাম গ্রহণ করেন।

গোপালগঞ্জ : গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের মধ্য দিয়ে মহান বিজয় দিবস পালন করা হয়েছে। বিজয় দিবসের প্রথম প্রহর রাত ১২টা ১ মিনিটে টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে প্রথমে শ্রদ্ধা জানান জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান সরকার।
এরপর পুলিশ সুপার মুহাম্মদ সাইদুর রহমান খান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. মো. নাসির উদ্দিন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান চৌধুরী ইমদাদুল হক, জেলা আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতা-কর্মীরা শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

রাজশাহী : বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) পালিত হয়েছে বিজয় দিবস। দিবসটি উপলক্ষে আজ রবিবার নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সূত্র জানায়, দিবসের প্রথম প্রহর রাত ১২টায় শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে শহীদ মিনারের পুষ্পস্তবক অর্পণ ও এক মিনিট নীরবতা পালন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এরপর রাবি সাংবাদিক সামিতি, রাবি প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এরপর সকাল ৭টায় রাবি শিক্ষক সমিতি ও বিভিন্ন হল প্রশাসন প্রভাতফেরি শেষে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

পটুয়াখালী : বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে পটুয়াখালীতে মহান বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে। সূর্যোদয়ের আগে ৩১ বার তোপধ্বনি দিয়ে দিবসের শুভ সূচনা করা হয়। সকাল সাড়ে ৬টায় স্মৃতিফলকে পুষ্পস্তবক অর্পণ, সাড়ে ৮টায় মরহুম আবুল কাশেম স্টেডিয়ামে কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানের সালাম গ্রহণ করেন জেলা প্রশাসক মতিউল ইসলাম চৌধুরী। এসময় উপস্থিত ছিলেন- পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মইনুল হাসান।
এর আগে, পটুয়াখালী মরহুম আবুল কাসেম স্টেডিয়ামে জাতীয় পতাকা বেলুন, ফেস্টুন, শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে কুচকাওয়াজের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক।

কিশোরগঞ্জ : নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে কিশোরগঞ্জে মহান বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে সকালে গুরুদয়াল সরকারি কলেজ মাঠের স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য দিলারা বেগম আছমা, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মো. জিল্লুর রহমান, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মো. জহিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) উপসচিব তরফদার মো. আক্তার জামীল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) দুলাল চন্দ্র সূত্রধর, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. আব্দুল্লাহ আল মাসউদ প্রমুখ।

লালমনিরহাট : লালমনিরহাটে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিসৌধে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্য দিয়ে দিবসের শুভ সূচনা হয়। মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিসৌধে শহীদের স্মরণে জেলা প্রশাসনের পক্ষে জেলা প্রশাসক শফিউল আরিফ, জেলা পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হক, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মতিয়ার রহমান, পুস্পস্তবক অর্পণ করেন।

টাঙ্গাইল : নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে টাঙ্গাইলে মহান বিজয় দিবস পালন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে সরকারি-বেসরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, তোপধ্বনি ও শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন, শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা এবং কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সকাল ৬টা ৩৫ মিনিটে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্য দিয়ে কর্মসূচির শুরু হয়। শুরুতেই টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল ইসলাম ও পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় শহীদ স্মৃতি পৌর উদ্যানে স্মৃতিসৌধে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন।

মধুপুর (টাঙ্গাইল) : টাঙ্গাইলের মধুপুরে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বিজয় দিবস পালন করা হয়েছে। সকাল ৭টার পর থেকে বংশাই নদীর ধারের শহীদ মিনারে স্থানীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, মধুপুর প্রেসক্লাব, টিআইবি-সনাক, ইয়েস গ্রুপ, দুপ্রক, রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

এরপর মধুপুর রাণী ভবানী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বিজয় দিবসের কর্মসূচি পালনের শুরুতে জাতীয় সংগীতের সঙ্গে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রমেন্দ্র নাথ বিশ্বাস কর্মসূচি উদ্বাধন করেন।

মাগুরা : মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে মাগুরায় বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে। সকালে মাগুরা শহরে বিজয় র‌্যালি বের করে জেলা আওয়ামী লীগ। র‌্যালিতে আওয়ামী লীগের হাজার-হাজার নেতাকর্মী অংশ নেয়।

এরপর সকাল সাড়ে ১১টায় মাগুরা নোমানী ময়দান থেকে বিজয় র‌্যালির আয়োজন করে জেলা আওয়ামী লীগ। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে আবার একই স্থানে এসে শেষ হয়। এসময় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পংকজ কুন্ডু, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ শরিফুল ইসলাম র‌্যালির নেতৃত্ব দেন।

নরসিংদী : নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে নরসিংদীতে মহান বিজয় দিবস পালন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে জেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করে। সকালে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিফলকে নরসিংদী জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগ, মাধবদী শহর আওয়ামী লীগ পৃথক বিজয় র‌্যালি বের করে। জেলা আওয়ামী লীগের র‌্যালিটি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়।

বাগেরহাট : নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বাগেরহাটে মহান বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে। দিবসটির প্রথম প্রহরে ৩১ বার তোপধ্বনির পর শহরের দশানীস্থ শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিস্তম্ভে পুস্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে বিজয় দিবসের কর্মসূচি শুরু হয়।

সকালে বাগেরহাট জেলা প্রশাসন, পুলিশ সুপারের কার্যালয়, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বাগেরহাট জেলা আওয়ামী লীগ, জেলা বিএনপি, বাগেরহাট প্রেসক্লাব, সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, দৈনিক বাস্তবতা, বাগেরহাট সড়ক ও জনপথ বিভাগ, জাতীয় সংবাদিক সংস্থা বাগেরহাট শাখা, বাগেরহাটে ইয়ুথ জার্নালিস্টস ফোরাম বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন পুষ্পমাল্য অর্পণ করে।

পঞ্চগড় : ৩১বার তোপধ্বনি ও জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে পঞ্চগড়ে স্বরণ করা হয়েছে বীর শহীদদের। দিবসটি উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নানা কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে কালেক্টরেট চত্ত্বরে ৩১বার তোপধ্বনি ও জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিবসের শুভ সূচনা করা হয়। এরপর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিফলকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এসময় বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীসহ এলাকাবাসী অংশ নেয়।

কুষ্টিয়া : নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে মহান বিজয় দিবস পালন করা হয়েছে। ভোরে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্য দিয়ে দিবসটির শুভ সূচনা হয় ও ৬টা ৪৫ মিনিটে কুষ্টিয়া কালেক্টরেট চত্ত্বরে কেন্দ্রীয় স্মৃতিস্তম্ভে এবং ৭টায় মজমপুর গেট সংলগ্ন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের এর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন। এছাড়াও সকাল ৯টায় জেলা স্টেডিয়ামে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে কুচকাওয়াজ ও শরীরচর্চা প্রদর্শনী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে দিবসটি পালন করা হয়।

রংপুর : রংপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস পালিত হচ্ছে। সকালে নগরীর প্রবেশ দ্বার মডার্ন মোড়ে অবস্থিত স্মৃতিসৌধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর মধ্য দিয়ে দিবসটির কার্যক্রম শুরু হয়। রংপুর বিভাগীয় কমিশনার রমিদুল ইসলাম রংপুর রেঞ্জের পুলিশের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আব্দুল আলীম মাহমুদ জেলা প্রশাসক এনামুল হাবিব পুলিশ সুপার মিজানুর রহমানসহ বিভাগীয় ও জেলা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

খাগড়াছড়ি : মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে মাটিরাঙ্গা উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক শহীদ পরিবার ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়। আজ রবিবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে মাটিরাঙ্গা ‘স্বাধীনতা সোপান’ চত্বরে অনুষ্ঠিত মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা সভায় সভাপতিত্ব করেন মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ।

মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা সভায় মাটিরাঙ্গা জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ নওরোজ নিকোশিয়ার পিএসসি জি, প্রধান আতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন। এতে আরো বক্তব্য রাখেন মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র মো. শামছুল হক, মাটিরাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সৈয়দ মো. জাকির হোসেন, মাটিরাঙ্গা উপজেলা সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. মুনছুর আলী প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here