ইতিহাস গড়ার দোরগোড়ায় ছিল ভারত। এ জন্য পার্থ টেস্টের শেষ দিনে ১৭৫ রান করতে হতো। হাতে ছিল ৫ উইকেট। করতে পারলেই প্রথমবার অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে তাদেরই কোনো সিরিজের প্রথম দুই টেস্টে হারানোর কীর্তি গড়ত টিম ইন্ডিয়া।

কিন্তু নিমিষেই স্বপ্ন ধূলিসাৎ। টেস্টের পঞ্চম দিনের ১ ঘণ্টাতেই কোহলি বাহিনীর এ রেকর্ড গড়ার স্বপ্ন গুঁড়িয়ে গেছে। মিচেল স্টার্ক, প্যাট কামিনসের গতির ঝড় এবং নাথান লায়নের স্পিন বিষে ১৫ ওভারেই অলআউট হয়ে গেছেন তারা। রান উঠেছে মাত্র ২৪। এতে ১৪৬ রানের বিশাল জয়ে ৪ ম্যাচ সিরিজে ১-১ সমতায় ফিরেছে অস্ট্রেলিয়া। প্রথম টেস্টে অল্পের জন্য হেরে গিয়েছিলেন অজিরা।

জয়ের জন্য ২৮৭ রান প্রয়োজন ছিল ভারতের। সে লক্ষ্যে গতকালের ৫ উইকেটে ১১২ রান নিয়ে মঙ্গলবার ব্যাট করতে নেমে সফরকারীরা গুটিয়ে যায় মাত্র ১৪০ রানে।

আগের দিনের অপরাজিত দুই ব্যাটসম্যান হনুমা বিহারি (২৪) ও রিশাব পান্ত (৯) মঙ্গলবার সকালে আবারও ব্যাট করতে নামেন। কিন্তু তাদের ষষ্ঠ উইকেট জুটি দিনের শুরুতেই ভেঙে দিলেন স্টার্ক। ইনিংসের ৪৭তম ওভারেই শেষ বলে এ বাঁহাতি পেসার বিহারিকে (২৮) মিডউইকেটে হ্যারিসের ক্যাচে পরিণত করেন। কিছুক্ষণ পরই ঋশব পান্টের চলার পথে কাঁটা হয়ে দাড়ালেন লায়ন। ডানহাতি এ অফস্পিনার ভারতীয় উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যানকে মিডউইকেটে পিটার হ্যান্ডসকম্বের (৩০) অসাধারণ ক্যাচে পরিনত করেন।

দুই সেট ব্যাটসম্যান ফিরে যাওয়ার অস্ট্রেলিয়ার জয়টা তখন ছিল সময়ের ব্যাপার মাত্র। শেষ পর্যন্ত হয়েছেও সেটাই। পরের তিন উইকেট স্বাগতিক বোলাররা তুলে নেন মাত্র ৩ রানের মধ্যে। যেখানে একটি স্টার্কের। দুটি প্যাট কামিন্সের।

উমেষ যাদবকে নিজের বলে নিজের ক্যাচে ফেরান স্টার্ক। দ্রুত সময়ের মধ্যে প্যাট কামিন্স গতির ঝড়ে ইশান্ত শর্মা ও জাসপ্রিত বুমরাকে তুলে নিয়ে অজিদের বিশাল জয় এনে দেন। একই সঙ্গে সিরিজে সমতায়ও ফেরান।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৩টি করে উইকেট নেন নাথান লায়ন ও মিচেল স্টার্ক। দুইটি করে উইকেট নেন জশ হ্যাজেলউড ও প্যাট কামিন্স। দুই ইনিংস মিলিয়ে ৮ উইকেট নেয়ার ম্যাচ সেরা হয়েছেন লায়ন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

অস্ট্রেলিয়া প্রথম ইনিংস: ৩২৬ (১০৮.৩ ওভার)

ভারত প্রথম ইনিংস: ২৮৩ (১০৫.৫ ওভার)

অস্ট্রেলিয়া দ্বিতীয় ইনিংস: ২৪৩ (৯৩.২ ওভার)

ভারত দ্বিতীয় ইনিংস: ১৪০ (৫৬ ওভার)

(লোকেশ রাহুল ০, মুরালি বিজয় ২০, চেতেশ্বর পূজারা ৪, বিরাট কোহলি ১৭, অজিঙ্কা রাহানে ৩০, হনুমা বিহারী ২৮, রিশাব পান্ত ৩০, উমেশ যাদব ২, ইশান্ত শর্মা ০, মোহাম্মদ শামি ০*, জ্যাসপ্রীত বুমরাহ ০; মিচেল স্টার্ক ৩/৪৬, জস হ্যাজলেউড ২/২৪, প্যাট কামিন্স ২/২৫, নাথান লায়ন ৩/৩৯)।

 

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here