‘সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ’ শ্লোগানে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করছেন দলটির সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে আওয়ামী লীগ তাদের নির্বাচনী ২১টি লক্ষ্য নিয়ে এই ইশতেহার ঘোষণা করছে।

ইশতেহারে ঘোষিত ২১ দফা প্রতিশ্রুতির মধ্যে অন্যতম দু’টি হলো- ‘আমার গ্রাম আমার শহর’, ‘তারুণ্যের শক্তি-বাংলাদেশের সমৃদ্ধি।

আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহার প্রণয়ন উপ-কমিটি সূত্র জানায়, দেশের ভারসাম্যপূর্ণ উন্নয়নকে অগ্রাধিকার দিয়ে তারুণ্যবান্ধব ইশেতেহার বানানো হয়েছে। যেখানে শিক্ষার গুণগত উন্নয়নের পাশাপাশি কর্মসংস্থান সৃষ্টির কথা বলা হয়েছে।

টানা তৃতীয়বার ক্ষমতায় থাকতে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ধরে রাখতে এবং মানবসম্পদের উন্নয়নে দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুরন রাজ্জাকের নেতৃত্বে ইশতেহার প্রণয়ন কমিটি গঠন করা হয়েছিল।

এ ছাড়া সংসদকে আরও কার্যকর করার উদ্যোগ, জবাবদিহিমূলক প্রশাসন নিশ্চিতকরণ, জনবান্ধব আইনশৃঙ্খলা বাহিনী গড়ে তোলা, দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, দখলদারি বন্ধে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়ার প্রতিশ্রুতি, প্রতিটি গ্রামকে শহরে উন্নীত করার কর্মসূচি গ্রহণ ও বাস্তবায়ন, পাঁচ বছরে এক কোটি ২৮ লাখ কর্মসৃজনের পরিকল্পনা গ্রহণ, মেগা প্রকল্প দ্রুত বাস্তবায়ন, ঢাকা ও বিভাগীয় শহরের মধ্যে বুলেট ট্রেন চালু, উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে যমুনার তলদেশ দিয়ে টানেল নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে।

কমিটির অন্য সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন- প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা মশিউর রহমান, রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচটি ইমাম, প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ড. অনুপম সেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক এবং আওয়ামী লীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here