কুশাল মেন্ডিস ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজের পর ওয়েলিংটন টেস্টে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের সামনে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল বৃষ্টি। সেই বৃষ্টির ফলেই ড্র হয়েছে টেস্ট। অমীমাংসিত ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন রেকর্ড ইনিংস খেলা কিউই ওপেনার টম লাথাম।

৩ উইকেটে ২৫৯ রান নিয়ে চতুর্থ দিন শেষ করা শ্রীলঙ্কা শেষদিন ব্যাট করতে পেরেছে মাত্র ১৩ ওভার। বৃষ্টির বাধায় আর বলই গড়ায়নি। পরে ম্যাচ অফিসিয়ালরা এই টেস্টকে ড্র ঘোষণা করেন।

ওয়েলিংটন টেস্টের প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কা গুটিয়ে গিয়েছিল ২৮২ রানে। জবাবে টম ল্যাথামের (২৬৪*) অসাধারণ ব্যাটিংয়ে ভর করে নিউজিল্যান্ড ৫৭৮ রানের পাহাড় গড়েছিল। তাতে লঙ্কানরা পেছনে পড়ে যায় ২৯৬ রানে। জবাব দিতে নেমে সফরকারীরা গত পরশু ২০ রান তুলতেই হারিয়েছিল ৩ উইকেট। যে কারণে ম্যাচ বাঁচানো নিয়েই শঙ্কায় পড়েছিল হাথুরুসিংহের শিষ্যরা। শেষ পর্যন্ত তেমন কিছুই হতে দিলেন না অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ ও কুশল পেরেরা। এ দুই ব্যাটসম্যান প্রায় চার সেশন ব্যাটিং করে গড়েন ২৭৪ রানের অবিচ্ছিন্ন এক জুটি। তাতে ৩ উইকেটে সফরকারীরা করে ২৮৭ রান।

বৃষ্টির কারণে পঞ্চম দিনের প্রথম সেশনে খেলা হয়েছে মাত্র ১৩ ওভার। এদিন অবশ্য কিছুটা অস্বস্তি দেখা গিয়েছিল ম্যাথুজের মধ্যে। কিউই পেসারদের সামনে বেশ নড়বড়ে মনে হয়েছে তাকে। এই ১৩ ওভারে তার ব্যাট থেকে এসেছে মাত্র ৩ রান। অন্যপ্রান্তে অবশ্য বেশিরভাগ সময় খেলেছেন মেন্ডিসই।

বৃষ্টিতে ওয়েলিংটন টেস্ট থেমে যাওয়ার আগে ৩৩৫ বলে ১৬ চারে ১৪১ রান নিয়ে অপরাজিত ছিলেন মেন্ডিস। এদিকে ৩২৩ বলে ১১ চারে ১২০ রানে অপরাজিত ছিলেন ম্যাথুজ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

শ্রীলঙ্কা: ২৮২ ও ২৮৭/৩ (কুশল মেন্ডিস ১৪১*, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস ১২০*; টিম সাউদি ২/৫২)
নিউজিল্যান্ড: ৫৭৮ (টম লাথাম ২৬৪*, কেন উইলিয়ামসন ৯১, হেনরি নিকোলস ৫০; লাহিরু কুমারা ৪/১২৭)
ফল: ম্যাচ ড্র
ম্যাচসেরা: টম লাথাম (নিউজিল্যান্ড)

 

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here