আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসলে মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন হয়। দেশের উন্নয়ন হয় বলে দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ শনিবার বিকালে সিলেটে নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি একথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ২০০১ সালে বিএনপি সরকার ক্ষমতায় এসে দুর্নীতি ও সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে। দুর্নীতি করে দেশের সুনাম ক্ষুণ্ন করেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এতিম খানার টাকা দুর্নীতির কারণে খালেদা জিয়া কারাভোগ করছেন। বিএনপি মানুষ পুড়িয়ে মারতে পারে। ২০১৪ সালে আন্দোলনের নামে মানুষ মেরেছে।

তিনি বলেন, ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় এসে মোবাইল ফোনের দাম কমিয়ে আমরা এখন মানুষের হাতে হাতে মোবাইল পৌঁছে দিয়েছি।

শেখ হাসিনা বলেন, নৌকা হচ্ছে মানুষের বন্ধু। বিপদে মানুষকে রক্ষা করে। এই নৌকায় ভোট দিয়েই দেশের উন্নয়ন হচ্ছে। আজ মানুষ বলে বাংলাদেশ মানেই উন্নয়ন। বাংলাদেশ মানেই উন্নয়নের রোল মডেল।

সিলেটের বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হিসেবে গড়ে তোলার পেছনে আওয়ামী লীগ সরকারের ভূমিকার কথা তুলে ধরেন তিনি। এছাড়া বিমানের উন্নয়নে সরকারের সিদ্ধান্তের কথাও বক্তব্যে তুলে ধরেন তিনি।

শিক্ষার উন্নয়নে বর্তমান সরকার প্রত্যেক জেলায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনেরও পরিকল্পনা নিয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

সিলেট বিভাগে মহাজোটের প্রত্যেক প্রার্থীর নাম উল্লেখ করে নৌকায় ভোট চেয়ে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে জনগণের কল্যাণ হয়।

মহাজোট প্রার্থীদের পাশাপাশি সিলেট বিভাগের জাপা প্রার্থীদের পক্ষেও ভোট চান তিনি। এর আগে সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে হযরত শাহ জালাল, হযরত শাহ পরান ও হযরত গাজী বোরহান উদ্দিন রহমাতুল্লাহি আলাইহির মাজার জিয়ারত করেছেন। এ সময় দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করেন তিনি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here