ইন্দোনেশিয়া সুন্দা প্রণালীর উপকূলে ভয়াবহ সুনামির আঘাতে অন্তত ৬২ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে ছয়শ’র বেশি মানুষ।

দেশটির দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থা জানায়, স্থানীয় সময় শনিবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে প্রচণ্ড গতিতে সুনামি আঘাত হানে। এখনও অনেক মানুষ নিখোঁজ রয়েছেন। হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

ইন্দোনেশিয়ার আবহাওয়া ও ভূপ্রকৃতিবিদ্যা সংস্থার বিজ্ঞানীদের মতে, আনাক ক্রাকাতোয়া আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাত থেকে সাগরের নিচে ভূমিধসের কারণে এই সুনামি সৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া পূর্ণিমার কারণে জোয়ারের ঢেউ সৃষ্টি হয়েছে।

দেশটির দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থা জানায়, সুনামিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে জাভার বানতেন প্রদেশের প্যানদেগ্ল্যাং এলাকা। নিহতদের মধ্যে ৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে জনপ্রিয় সমুদ্র সৈকতের স্থানটিতে।

দক্ষিণ সুমাত্রার বান্দার লাম্পাং শহরের কয়েক হাজার মানুষ সরকারি অফিসে আশ্রয় নিয়েছে। প্রায় পাঁচশ ঘরবাড়ি, নয়টি হোটেল ও ১০টি জাহাজ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া অসংখ্য সড়ক পানির নিচে ডুবে গেছে, বহু গাড়ি সুনামির প্রবল ঢেউয়ে উল্টে গেছে।

এর আগে গত সেপ্টেম্বরে সুলাওয়েসি দ্বীপের পালু শহরে আঘাত হানা ভয়াবহ ভূমিকম্প ও সুনামিতে আড়াই হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here