একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণের দিন ৩০ ডিসেম্বর দেশজুড়ে সড়কপথের সকল যন্ত্রচালিত যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। তবে মোটরসাইকেলের ওপর এই নিষেধাজ্ঞা আরও সম্প্রসারিত থাকছে। ভোটের আগের দিন থেকে শুরু করে ভোটের পরের দিনও মোটর সাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা থাকবে।

আজ সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় থেকে জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে নিষেধাজ্ঞার কথা জানানো হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ভোটগ্রহণের দিনের পূর্ববর্তী মধ্যরাত অর্থাৎ ২৯ ডিসেম্বর দিবাগত রাত ১২টা থেকে ৩০ ডিসেম্বর দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত ১০ ধরনের যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা থাকবে।

এছাড়া, ২৮ ডিসেম্বর ২০১৮ দিবাগত মধ্যরাত ১২টা থেকে ১ জানুয়ারি ২০১৯ মধ্যরাত পর্যন্ত মোটর সাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা থাকবে।

ভোটের দিন যেসব যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা থাকবে তার একটি তালিকাও দিয়েছে মন্ত্রণালয়ের সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ। এগুলো হলো: বেবি ট্যাক্সি/অটোরিকশা/ইজিবাইক, ট্যাক্সি ক্যাব, মাইক্রোবাস, জিপ, পিক আপ, কার, বাস, ট্রাক, টেম্পো, ইজিবাইক এবং স্থানীয় পর্যায়ে বিভিন্ন যন্ত্রচালিত যানবাহন।

এই নিষেধাজ্ঞার ফলে কার্যত বাইসাইকেল, রিকশা বা ভ্যান ছাড়া সড়কে আর তেমন কোনো যানবাহনের দেখা মিলবে না।

তবে এম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, বিদ্যুৎ, ডাক, টেলিযোগাযোগ, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর যানবাহনের ক্ষেত্রে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে না। আর নির্বাচন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ, পর্যবেক্ষক ও সংবাদ কর্মীদের ক্ষেত্রে পরিচয়পত্র থাকা সাপেক্ষে নিষেধাজ্ঞা শিথিলযোগ্য।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here