মার্কিন সেনারা সিরিয়া থেকে পালিয়ে গেছে বলে দাবি করেছেন প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের রাজনৈতিক উপদেষ্টা বাসিনা শা’বান। তিনি বলেছেন, “আমরা প্রতিরোধ গড়ে তোলার কারণে মার্কিনীরা পালিয়ে গেছে।”

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সিরিয়া থেকে তার দেশের সেনা সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দেয়ার পর বাসিনা শা’বান এ মন্তব্য করলেন।  ট্রাম্পের ওই নির্দেশের পর সিরিয়ার উত্তরাঞ্চল থেকে সামরিক সরঞ্জাম ভর্তি শত শত ট্রলি ইরাকের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছে বলে খবর এসেছে।

এ সম্পর্কে প্রেসিডেন্ট আসাদের উপদেষ্টা বলেন, যেসব খবর ও সংবাদ বিশ্লেষণে পালিয়ে যাওয়া একটি সেনাদলকে শক্তিশালী অবস্থানে রেখে খবর পরিবেশন করা হয় তারা পরিস্থিতিকে উল্টো করে তুলে ধরছেন।

বাসিনা শা’বান বলেন, কেউ কেউ সিরিয়া থেকে পলায়নপর একটি বাহিনীর পরাজয় ঢেকে রাখার চেষ্টা করছে। অথচ সিরিয়ার যে সেনাবাহিনীর প্রতিরোধের মুখে মার্কিন সরকার সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিলে সেই সেনাবাহিনীর প্রশংসা করে কেউ খবর পরিবেশন করছে না।

সিরিয়ায় ২০১১ সালে বিদেশি মদদে সহিংসতা শুরু হলে মার্কিন সরকার জোর গলায় ঘোষণা করেছিল, তারা প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদকে ক্ষমতাচ্যুত করতে চায়। পরবর্তীতে সিরিয়ায় মার্কিন সমর্থিত উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠী দায়েশ ঢুকে পড়লে ২০১৪ সালে ওই গোষ্ঠীকে দমনের নামে দেশটিতে সেনা মোতায়েন করে ওয়াশিংটন।

তবে এ কাজের জন্য সিরিয়া সরকারের অনুমতি নেয়নি মার্কিন সরকার। আসাদ সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করার যে ঘোষণা এর আগে ওয়াশিংটন দিয়েছিল তা বাস্তবায়নে সহায়তা করা ছিল দেশটিতে মার্কিন সেনা মোতায়েনের অন্যতম উদ্দেশ্য। কিন্তু সে উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের কোনো সুযোগ না থাকায় সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here