ঘটনার একদিন পর নো বল ইস্যুতে মুখ খুলেছেন আম্পায়ার তানভীর আহমেদ। মাত্র ক`দিন আগে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট পরিচালনার দায়িত্ব পাওয়া তানভীর নো বল কাণ্ডে নিজের ভুল স্বীকার করেছেন। অনভিজ্ঞতার কারণেই এমন ভুল হয়েছে বলে মনে করেন তিনি। এ অভিজ্ঞতা সামনের দিনে তাকে পথ চলতে সাহায্য করবে বলেও বিশ্বাস তার।

গতপরশু ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে শেষ টি২০ ম্যাচে বাংলাদেশ ইনিংসের চতুর্থ ওভারে ঘটেছিল ঘটনাটি। ওসানে থমাসের ওই ওভারে দুটি নো বল কল করেছিলেন তানভীর। কিন্তু টিভি রিপ্লেতে দেখা গেছে, দু`বারই থমাসের পা দাগের পেছনে ছিল। এর মধ্যে দ্বিতীয় নো বলে লিটন দাস ক্যাচ দিয়েছিলেন।

মাঠের জায়ান্ট স্ট্ক্রিনে যখন ক্যারিবীয়রা দেখেন যে বলটি নো ছিল না, তখনই তারা ক্ষোভে ফেটে পড়েন। অধিনায়ক কার্লোস ব্রাথওয়েটের নেতৃত্বে তারা প্রতিবাদ জানান। এ কারণে ৮ মিনিট খেলা বন্ধ ছিল। পরে ম্যাচ রেফারি জেফ ক্রো ও চতুর্থ আম্পায়ার শরফুদ্দৌলা ইবনে শহীদ সৈকত মাঠে নেমে পরিস্থিতি সামাল দেন।

নো বল দুটি যে ভুল করে ডেকেছিলেন গতকাল তা স্বীকার করেন তানভীর, `নো বলের ক্ষেত্রে দাগ ও পা অনেক কাছাকাছির বিষয় থাকে। আর দ্রুত লাফ দিলে অনেক সময় বুঝতে একটু সমস্যা হয়।

তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আমি নতুন। আমি ভুল করেছি। তবে খেয়াল করে দেখবেন, পেছনে আমার কোনো বাজে ইতিহাস নেই। একটা ভুল হয়ে গেছে। আশা করছি সামনে ভালোভাবে ফিরে আসব। প্রতিটি মানুষেরই ভালো দিন, খারাপ দিন যায়। গতকাল (শনিবার) আমার খারাপ দিন গেছে।` ভুলটাকে সহজভাবেই নিচ্ছেন তিনি, `গতকাল কেবল ম্যাচ শেষ হয়েছে। আমি কোনো দিকেই মনোযোগ দিচ্ছি না। নিজের ভুলটা নিয়েই ভাবছি।`

সম্প্রতি বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে বাজে আম্পায়ারিংয়ের উদাহরণ ভুরি ভুরি। সেখানে ঘরোয়া ক্রিকেটে আম্পায়ারিংয়ে তানভীরের বেশ সুনাম আছে। এ কারণে গত নভেম্বরে ২০১৮-২০১৯ মৌসুমের জন্য আইসিসির প্যানেলে জায়গা পান তিনি।

সিলেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টি২০ ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আম্পায়ারিং শুরু করেন তিনি। গতপরশু ছিল তার তৃতীয় ম্যাচ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here