ইনজুরি কাটিয়ে বিপিএল দিয়েই মাঠে ফিরছেন বাংলাদেশ অলরাউন্ডার নাসির হোসেন। সেখানে পারফর্ম করেই ফিরে আসতে চান জাতীয় দলে, এমন আশা নয় মাস ধরে জাতীয় দলের বাইরে থাকা নাসিরের। একই সঙে হাটুর ইনজুরি কাটিয়ে উঠেছেন নাসির। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আসন্ন বিপিএলে সিলেট সিক্সার্সের হয়ে খেলতে দেখা যাবে নাসির হোসেনকে। আর জাতীয় দলে ফেরার জন্য বিপিএলকেই টার্গেট করছেন নাসির।

গত মার্চে নিদাহাস ট্রফির পর দেশে ফিরে হাটুর ইনজুরিতে পড়েন নাসির। সেই গত এপ্রিলে ইনজুরিতে আক্রান্ত হয়েছিলেন টাইগার অলরাউন্ডার নাসির হোসেন। ফুটবল খেলতে গিয়ে পায়ের লিগামেন্ট ছিঁড়ে গিয়েছিল তার। এরপর গত জুনে চিকিৎসা হয় অস্ট্রেলিয়ায়। অস্ত্রোপচার শেষে বিশ্রামে কেটে গেছে মাস-ছয়েকের বেশি।

দীর্ঘ নয় মাস ক্রিকেটের বাহিরে থাকা নাসির ফিরেছেন বিসিবির জিমে, ফিটনেস টেস্ট দিতে। কেমন ছিল নাসিরের ফেলে আসা সেই সময়?

“(হাসি দিয়ে) ওয়ান্ডারফুল সময় গেছে আমার।”

“অবশ্যই একটু পিছিয়ে পড়ছি। কারণ, এই আট-নয় মাস আমি অনেক গুলো ম্যাচ খেলিনি। আমাকে প্রুফ করার অনেক সুযোগ থাকতো এই আট-নয় মাসে, সেটা পায়নি।”

বর্তমান বাংলাদেশ জাতীয় দলে অনেক প্রতিদ্বন্দ্বিতা বেড়েছে। পাইপলাইন হয়েছে অনেক বড় লম্বা। গত জানুয়ারিতে সবশেষ ওয়ানডে খেলা নাসির নিজের ফিটনেস নিয়ে কতটা সন্তুষ্ট? নিজেকে ফিরে পেতেই বা কতটা প্রস্তুত নাসির?

“আমার কনফিডেন্স আরও কয়েকটা ম্যাচ খেললে হয়তোবা আর একটু ভালো হবে। যতো ম্যাচ খেলব তত কনফিডেন্স বাড়বে। প্রায় এক মাস হয়ে গেল আমি ব্যাটিং করা শুরু করেছি। আমি যত এখন প্র‍্যাক্টিস করব, আর ম্যাচ খেলব এইটা আমার কনফিডেন্স বাড়বে। আমি বিশ্বাস করি আমি যদি পারফর্ম করি তাহলে অবশ্যই আমি ন্যাশনাল টিমে ঢুকব।”

সবকিছু ঠিক থাকলে সিলেট সিক্সার্সের হয়ে বিপিএলের শুরু থেকেই প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে ফিরবেন নাসির হোসেন। আগামী ৫ জানুয়ারি বিপিএলের ষষ্ঠ আসর শুরু হলেও ৬ জানুয়ারি নিজেদের প্রথম ম্যাচে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মুখোমুখি হবে টিম সিলেট সিক্সার্স।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here