আর্জেন্টিনা ফুটবল দল ঘরের মাঠে আকাশী-সাদা (হোম) আর প্রতিপক্ষের মাঠে গাড় নীল (অ্যাওয়ে) জার্সি পরেই খেলতে নামে।

https://www.footyheadlines.com/2018/09/adidas-argentina-2019-copa-america-home-kit.html

নীল জার্সিতেই ২০১৪ সালের ফাইনালে জার্মানির বিপক্ষে হারতে হয়েছিল। অনেকেই বলেছিলেন রংটি আর্জেন্টাইনদের জন্য ‘অশুভ’। ২০১৮ সালের বিশ্বকাপে নতুন রূপে দেখা যায় দক্ষিণ আমেরিকার জায়ান্টদের। সেবার মূল জার্সি আকাশী হলেও অ্যাওয়ে জার্সিটি নীল বাদ দিয়ে কালো রং নিয়ে মাঠে নামে লিওনেল মেসির দল। যদিও রাশিয়া মিশনে থামতে হয়েছিল দ্বিতীয় রাউন্ডে গিয়েই। বিশ্বকাপ থেকে ফিরে আসার পর কোচ থেকে খেলোয়াড় পর্যন্ত ব্যাপক রদবদল হলেও জার্সিতে বদল আনেনি আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এএফএ)। দলের সবচেয়ে পরিচিত মুখ গুলোও রয়েছে অনুপস্থিত। কথিত রয়েছে আগামী জুনে ব্রাজিলে হতে চলা কোপা আমেরিকার আগেই দলে ফিরবেন মেসি, অ্যাঞ্জেলো ডি মারিয়াসহ বড় তারকারা দক্ষিণ আমেরিকার বিশ্বকাপ খ্যাত এই টুর্নামেন্টে পাউলো দিবালা-মাউরো ইর্কাদিদের গায়ে দেখা যাবে ‘নতুন জার্সি’।

https://www.footyheadlines.com/2018/09/adidas-argentina-2019-copa-america-home-kit.html

সম্প্রতি জার্মান ক্রীড়াসামগ্রী নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাডিডাসের তৈরি আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের আকাশী-সাদা জার্সির ছবি ফাঁস হয়েছে। আর্জেন্টিনার ফুটবল সংক্রান্ত সব সংবাদ প্রকাশ করে থাকে মুন্ডো আলবেসিলেস্তে। ওয়েবসাইটটি জানাচ্ছে, এই জার্সিটি পড়ে কোপা আমেরিকায় খেলার সম্ভাবনা রয়েছে লিওনেল স্কালোনির শিষ্যদের।

দেশটির রাজধানী বুয়েনস আয়ার্সের বার্সিন্দা ইজিকুইয়েল ফার্নানদেজ এক টুইটার পোস্টের মাধ্যমে জার্সির ছবিটি ফাঁস করেছেন। এ নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন ভক্তরা।

https://www.footyheadlines.com/2018/09/adidas-argentina-2019-copa-america-home-kit.html

যদিও এএফএ অথবা অ্যাডিডাস কর্তৃপক্ষ কেউই আনুষ্ঠানিক ভাবে বিষয়টি নিয়ে এখনও মুখ খোলেনি।

২০১৯ সালের ১৪ জুন থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত চলবে কোপা আমেরিকা। দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবল কনফেডারেশন (কনমেবল) অঞ্চল থেকে ১০টি দল আর এশিয়া থেকে দুটি অতিথি দলসহ মোট ১২টি দল তিনটি গ্রুপে ভাগ হয়ে এতে অংশ নিচ্ছে।

২৪ জানুয়ারি এ, বি ও সি গ্রুপের ড্র আয়োজন করা হবে। স্বাগতিক ব্রাজিল ও দলটির চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনা ছাড়াও এতে কনমেবল থেকে অংশ নিচ্ছে বলিভিয়া, চিলি, কলোম্বিয়া, ইকুয়েডর, প্যারাগুয়ে, পেরু, উরুগুয়ে, ভেনিজুয়েলা। এশিয়া অঞ্চল থেকে এতে যোগ দিচ্ছে জাপান ও ২০২২ সালের বিশ্বকাপ ফুটবলের আয়োজক কাতার।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here