বল টেম্পারিংয়ের দ্বায়ে নিষিদ্ধ ডেভিড ওয়ার্নার নতুন বছরের শুরুতেই পেলেন সুখবর। আবারও বাবা হতে যাচ্ছেন তিনি। এরআগে অবশ্য গত মার্চে তার স্ত্রী ক্যান্ডিস ওয়ার্নারের গর্ভের সন্তান নষ্ট হয়েছিল। নতুন করে বাবা হতে যাওয়ার খবরটি নিশ্চয়ই অস্ট্রেলিয়ার সাবেক সহ অধিনায়কের জন্য বড় সুসংবাদই।

গত বছরটি ওয়ার্নারের জন্য ছিল দুঃখের। কেননা বল টেম্পারিং-কাণ্ডে অভিযুক্ত হয়ে সব ধরণের ক্রিকেট থেকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ হন। ঠিক সে সময় এ ডানহাতি ব্যাটসম্যান শুনতে পান স্ত্রী ক্যান্ডিসের গর্ভপাতে। তবে নতুন বছরের শুরুটা দারুণ এক সুখবর দিয়েই করেছেন তিনি।

এক টুইট বার্তায় পুরনো বছরের স্মৃতিচারণ করে ওয়ার্নার লিখেছেন, ‘আপনারা এ বছর আমাদের কঠিন সময়ে যে ভালোবাসা ও সমর্থন দিয়ে গেছেন সে জন্য আমরা দুজনই দারুণ কৃতজ্ঞ। অত্যন্ত আনন্দের সঙ্গে জানাতে চাচ্ছি যে ২০১৯ সালে আমাদের ৪ জনের পরিবার পাঁচজনে পরিণত হতে যাচ্ছে।’

বল টেম্পারিং কান্ডে মূল হোতা হিসেবে ওয়ার্নারকে অনেকদিন ধরে চিহ্নিত করার একটা চেষ্টা চলছে। এদিকে ঐ ঘটনার পুরো পরিকল্পনাকারি হিসেবে উঠে আসছে তার নামই। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার তদন্তেও বলা হচ্ছে তেমনটাই। ঠিক এমন এক দুঃসময়ে ওয়ার্নারের কাছে বাবা হওয়ায় খবরটি ওয়ার্নারকে দিয়েছে কিছুটা প্রশান্তি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here