আংশিক নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আরও দুই বছর আগেই ক্রিকেটে ফিরেছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। তবে ফেরা হয়নি ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে। এবার সেটাও খেলেছেন তিনি।

 বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) এবারের আসরে চিটাগং ভাইকিংসের হয়ে খেলবেন সাবেক অধিনায়ক। আর এ আসরে ভালো কিছু করে এবার জাতীয় দলে ফেরার রাস্তাটা তৈরি করতে চান সর্বকনিষ্ঠ টেস্ট সেঞ্চুরিয়ান।

কিন্তু বর্তমান প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশ জাতীয় দলে জায়গা ফিরে পাওয়াটা বেশ কঠিনই আশরাফুলের জন্য। কারণ জাতীয় দলের মূল একাদশের জায়গাটা প্রায় তৈরি। বিশেষ করে সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহীম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদদের মতো খেলোয়াড়দের সমন্বয়ে মিডল অর্ডারে জায়গা পাওয়াটা খুব কঠিন। তবে মোহাম্মদ মিঠুন, আরিফুল হকদের মতো অনভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানদের জায়গাটা পাকাপোক্ত নয় জানেন আশরাফুল।

তাই পারফর্ম করতে পারলে অভিজ্ঞতার বিচারে হয়তো সুযোগ পেতেও পারেন বলে বিশ্বাস করেন আশরাফুল, ‘বাংলাদেশ দলে তো অবশ্যই খেলতে চাই। কারণ তিনটি বিশ্বকাপ খেলেছি বাংলাদেশের হয়ে। ২০০৩, ২০০৭ এবং ২০১১ সালে। ২০১৫ সালে নিষেধাজ্ঞা না থাকলে হয়তো তখন সুযোগ পেতে পারতাম। সামনে যেহেতু ২০১৯ বিশ্বকাপ রয়েছে, যদিও আমি সেটি নিয়ে চিন্তা করছি না। তার পরেও আমি মনে করি যে আমি যদি ভালো পারফর্মেন্স করতে পারি আমার অভিজ্ঞতাগুলো বিবেচনা করতে পারে।’

এর আগে জাতীয় লিগ, বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ ও ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ খেলেছেন আশরাফুল। পারফর্মও করেছেন ভালই। কিন্তু আলোচনায় আসতে পারেননি। কিন্তু বিপিএল সরাসরি সম্প্রচার হবে বলে ভিন্ন কিছু আশা করছেন তিনি, ‘এই ফরম্যাটটি ভিন্ন। এখানে আসলে সম্প্রচার হয়, ফোকাস হয়, পারফর্মেন্সটি গনা হয়। সবগুলো পারফর্মেন্সই গণ্য করা হয়, তবে এটি একটু আলাদাভাবে হয়। একটি ক্রিকেটারের যে স্বপ্ন থাকে বাংলাদেশ দলে খেলাটা সেটার জন্য আসলে এটি অনেক বড় মঞ্চ। আমি আসলে এর জন্যই অপেক্ষা করছিলাম গত পাঁচটি বছর।’

গত ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে রেকর্ড পাঁচটি সেঞ্চুরি করেছেন আশরাফুল। কিন্তু জাতীয় দলে ফেরার জন্য তা যথেষ্ট ছিল না। কারণ তখন জাতীয় দল থেকে নিষিদ্ধ ছিলেন তিনি। তবে এবার বিপিএলে ভালো কিছু করে আবার আলোচনায় ফিরতে চান এ ক্রিকেটার, ‘নিষেধাজ্ঞা না থাকলে প্রিমিয়ার লীগে পাঁচটি সেঞ্চুরি নিয়ে হয়তোবা অনেক আলোচনা হতো। নিষেধাজ্ঞা ছিলো যে আমি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট বা বিপিএলে খেলতে পারবো না।  আমার মূল ফোকাসটি ছিলো এই বিপিএলেই। কারণ এখানে ভালো কিংবা ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলতে পারলে অনেক সহজ হবে। যেহেতু আমার অনেক অভিজ্ঞতা আছে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here