কিছুক্ষণ পরই ক্রিকেটপ্রেমিদের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে মাঠে গড়াচ্ছে ষষ্ঠ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)। গতবারের মতো এবারও এ টুর্নামেন্টে ৭টি দল অংশ নিচ্ছে। খেলা হবে ৩টি ভেন্যু- ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেটে। ঘরোয়া ক্রিকেটের সবচেয়ে মর্যদাপূর্ণ এ টুর্নামেন্টকে সফলভাবে শেষ করতে এরইমধ্যে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে বিপিএল গর্ভনিং কাউন্সিল। চলুন এক নজরে দেখে নেয় বিপিএলের আগের পরিসংখ্যান আসলে কেমন ছিল-

শিরোপা:                                                                ঢাকা  ৩ বার। (দুবার ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্স, একবার ঢাকা ডায়নামাইটস)

বেশি শিরোপাজয়ী অধিনায়ক:                                   মাশরাফি বিন মর্তুজা (৪বার)

সর্বোচ্চ স্ট্রাইকরেট:                                                  ১৮৫.১৮! কার্লোস ব্র্যাথওয়েট। ১২ ম্যাচে এই স্ট্রাইকরেটে ২৫০ রান।

বেশি সেঞ্চুরি:                                                          ৫টি, ক্রিস গেইলের।

বেশি হাফসেঞ্চুরি:                                                     ১৪টি, তামিম ইকবালের।

সর্বোচ্চ রান:

১। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (৫৯ ইনিংসে ১৪০০ রান)

২। তামিম ইকবাল (৪৩ ইনিংসে ১৩৫৮ রান)

৩। মুশফিকুর রহিম (৫৪ ইনিংসে ১৩৫৭ রান)

৪। সাকিব আল হাসান (৬০ ইনিংসে ১১৮২ রান)

৫। ইমরুল কায়েস (৫৪ ইনিংসে ১১৪৯ রান)

সর্বোচ্চ উইকেট:

১। সাকিব আল হাসান (৬১ ইনিংসে ৮৩ উইকেট)

২। কেভিন কুপার (৩৭ ইনিংসে ৬৩ উইকেট)

৩। শফিউল ইসলাম (৪৭ ইনিংসে ৫৪ উইকেট)

৪। মাশরাফি বিন মর্তুজা (৫৭ ইনিংসে ৫১ উইকেট)

৫। মোহাম্মদ নবী (৩৮ ইনিংসে ৫০ উইকেট)

এক আসরে সর্বোচ্চ রান:

১। আহমেদ শেহজাদ (১২ ইনিংসে ৪৮৬ রান-২০১১/১২)

২। ক্রিস গেইল (১১ ইনিংসে ৪৮৫ রান-২০১৭/১৮)

৩। তামিম ইকবাল (১৩ ইনিংসে ৪৭৬ রান-২০১৬/১৭)

৪। মুশফিকুর রহিম (১৩ ইনিংসে ৪৪০ রান-২০১২/১৩)

৫। রায়ান টেন ডয়েসকাট (১৩ ইনিংসে ৪৩২ রান-২০১২/১৩)

সর্বোচ্চ ছক্কা:

১। ক্রিস গেইল (২৬ ইনিংসে ১০৭টি)

২। সাব্বির রহমান (৫৪ ইনিংসে ৪৭টি)

৩। এনামুল হক বিজয় (৫৩ ইনিংসে ৪৫টি)

৪। এভিন লুইস (২১ ইনিংসে ৪৩টি)

৫। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (৫৯ ইনিংসে ৪৩টি)

সর্বোচ্চ ডাক (শূন্য রান):

১। ইমরুল কায়েস (৮ বার)

২। সাব্বির রহমান (৬ বার)

৩। রুবেল হোসেন, কেভিন কুপার, মোহাম্মদ মিঠুন, এনামুল হক বিজয় এবং মুশফিকুর রহিম (৪ বার)

ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের ইনিংস:

এই তালিকায় শীর্ষ পাঁচের চারটিতেই ক্রিস গেইলের নাম। প্রথম দুটি আর পরের দুটি। মাঝে সাব্বির রহমান করেছিলেন ১২২ রান (৬১ বলে)। গেইলের সর্বোচ্চ ইনিংস ৬৯ বলে অপরাজিত ১৪৬ রান। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংসে গেইল ৫১ বলে করেছিলেন অপরাজিত ১২৬ রান। দুটি সেঞ্চুরিই করেছিলেন গতবার রংপুর রাইডার্সের জার্সিতে। এছাড়া, ২০১২ সালে করেছিলেন ৬১ বলে ১১৬ রান আর ২০১৩ সালে করেছিলেন ৫১ বলে ১১৪ রান।

সেঞ্চুরির লিস্ট:

২০১২ আসর (চারটি): ক্রিস গেইল (১০১*, ১১৬), ডোয়াইন স্মিথ (১০৩*) এবং আহমেদ শেহজাদ (১১৩*)।

২০১৩ আসর (তিনটি): শাহরিয়ার নাফিস (১০২*), মোহাম্মদ আশরাফুল (১০৩*) এবং ক্রিস গেইল (১১৪)।

২০১৫ আসর (একটি): এভিন লুইস (১০১*)।

২০১৬ আসর (একটি): সাব্বির রহমান (১২২)।

২০১৭ আসর (তিনটি): ক্রিস গেইল (১৪৬* এবং ১২৬*), জনসন চার্লস (১০৫*)।

সর্বোচ্চ দলীয় রান ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্স (২১৭/৪, ২০ ওভার) প্রতিপক্ষ রংপুর রাইডার্স-২০১৩

সর্বনিম্ন দলীয় রান খুলনা টাইটান্স (৪৪/১০, ১০.৪ ওভার) প্রতিপক্ষ রংপুর রাইডার্স-২০১৬

 

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here