জর্দান বলেছে, গোলান মালভূমি হচ্ছে ইহুদিবাদী ইসরাইলের দখল করা ভূমি, আন্তর্জাতিক আইনের প্রতি সম্মান দেখিয়ে অবশ্যই তা সিরিয়ার কাছে ফেরত দিতে হবে। ইসরাইল সম্প্রতি গোলান মালভূমিকে ইসরাইলের অংশ বলে স্বীকৃতি দেয়ার জন্য আমেরিকার প্রতি আহ্বান জানানোর পর আম্মান সরকার এ কথা বলল।

গতকাল রাজধানী আম্মানে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে জর্দানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আয়মান সাফাদি বলেন, “গোলান হচ্ছে ইসরাইলের দখল করা ভূমি। এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক আইন পরিষ্কার। বিষয়টিকে সেভাবেই দেখতে হবে।”

১৯৭৪ সালে দামেস্ক সরকারের সঙ্গে যে যুদ্ধবিরতি চুক্তি হয়েছিল তার ভিত্তিতে আয়মান সাফাদি ইসরাইলকে গোলান মালভূমি ছেড়ে দেয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, “আমাদের অবস্থান হচ্ছে- শান্তি চুক্তির অধীনে গোলান মালভূমি সিরিয়ার কাছে ইসরাইলের ছেড়ে দেয়া দরকার।”

দুই দিন আগে ইহুদিবাদী ইসরাইলের যুদ্ধবাজ প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু জোর দিয়ে বলেন, ইসরাইল কখনো গোলান মালভূমি ছেড়ে দেবে না। এ সময় তিনি গোলান মালভূমিকে ইসরাইলের অংশ বলে স্বীকৃতি দিতে বিশ্বের দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানান। মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টনের সঙ্গে বৈঠকের সময় নেতানিয়াহু এসব কথা বলেন।

১৯৬৭ সালে ছয় দিনের আরব-ইসরাইল যুদ্ধের সময় গোলান মালভূমি দখল করে নেয় ইহুদিবাদী সেনারা। এরপর যুদ্ধবিরতি চুক্তি হলেও গোলান ফেরত দেয় নি ইসরাইল; আন্তর্জাতিক সমাজও জোর দিয়ে ইসরাইলকে কিছু বলে নি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here