ইহুদিবাদী ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমানের সাক্ষাৎ আলোজনের জন্য ব্যাপক তোড়জোড় চলছে বলে খবর দিয়েছে মিশরের একাধিক কূটনৈতিক সূত্র। সূত্রগুলো বলেছে, এ লক্ষ্যে কয়েকটি আরব দেশ এবং আমেরিকা ও ইসরাইলের প্রতিনিধিরা কায়রোয় ব্যাপকভিত্তিক আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন।

সূত্রগুলো আরবি দৈনিক খালিজ অনলাইনকে জানিয়েছে, মিশর, সৌদি আরব, আমেরিকা ও ইসরাইলি কর্মকর্তারা গত ২৫ দিনে কায়রোয় অন্তত তিনটি বৈঠক করেছেন। নেতানিয়াহু ও মোহাম্মাদ বিন সালমানের মধ্যে সম্ভাব্য সাক্ষাতের খুটিনাটি নিয়ে এসব বৈঠকে আলোচনা হয়েছে।

সৌদি আরবের প্রবল আগ্রহের কারণে এই সাক্ষাতের আয়োজন করা হচ্ছে বলেও মিশরীয় সূত্রগুলো জানিয়েছে।

খালিজ অনলাইনকে দেয়া এক বিবৃতিতে সূত্রগুলো বলেছে, দখলদার ইসরাইলের জন্য সৌদি আরবের দরজা উন্মুক্ত করে দেয়ার জন্য রিয়াদের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রীয় অনুরাগ প্রদর্শন করা হচ্ছে। ইসরাইলের সঙ্গে সর্বোচ্চ পর্যায়ের সম্পর্ক স্থাপন করতে চায় সৌদি আরব।

মিশরের কূটনৈতিক সূত্রগুলো আরো বলেছে, ইহুদিবাদী ইসরাইলের সঙ্গে আরব দেশগুলোর সম্পর্কের ক্ষেত্রে একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে চায় সৌদি আরব যাতে অন্যান্য আরব দেশও সহজেই রিয়াদকে অনুসরণ করে তেল আবিবকে স্বীকৃতি দিয়ে এই অবৈধ দখলদার শক্তির সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করতে পারে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here