মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও আবারও কূটকৌশলের আশ্রয় নিয়ে ইরানকে সন্ত্রাসবাদের সমর্থক হিসেবে তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন। তিনি মার্কিন নিউজ চ্যানেল সিবিএস’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সিরিয়া ও ইরান প্রসঙ্গে নিজের দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরতে গিয়ে এই দাবি করেন।

পম্পেও তার ভাষায় ইরানের পক্ষ থেকে সৃষ্টি বিপদ মোকাবিলা করার ওপর গুরুত্ব আরোপ করে বলেন, ইরানের মাধ্যমে সন্ত্রাসবাদের যে হুমকি সৃষ্টি হয়েছে তা প্রতিহত করার চেষ্টা করছে ওয়াশিংটন।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এমন সময় ইরানকে সন্ত্রাসবাদে সমর্থন দেয়ার জন্য অভিযুক্ত করলেন যখন বিশ্বের আর কোনো দেশ ইরানের মতো সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়নি।

গত চার দশকে সন্ত্রাসী মোনাফেকিন গোষ্ঠী, আল-কায়দা, তালেবান ও দায়েশের হামলায় প্রায় ১৭ হাজার ইরানি নাগরিক নিহত হয়েছে।

অন্যদিকে, পদস্থ মার্কিন কর্মকর্তাদের পাশাপাশি আমেরিকার গণমাধ্যম এর আগে আল-কায়েদা, দায়েশ, আন-নুসরা ফ্রন্টসহ অন্যান্য সন্ত্রাসী গোষ্ঠী সৃষ্টিতে আমেরিকার ভূমিকা থাকার কথা স্বীকার করেছে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও সিবিএস’কে দেয়া সাক্ষাৎকারের অন্য অংশে সিরিয়া থেকে তার দেশের সেনা প্রত্যাহার সম্পর্কিত এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, সিরিয়ায় বর্তমানে দুই হাজার মার্কিন সেনা মোতায়েন রয়েছে যাদের সবাইকে প্রত্যাহার করা হবে এবং প্রত্যাহার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here