ভারতে সাংবাদিক হত্যার দায়ে ধর্মীয় আধ্যাত্মিক গুরু রাম রহিম সিংকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে দেশটির আদালত।

ওই গুরুর বিরুদ্ধে তার আশ্রমে নারীদের যৌন নির্যাতনের খবর প্রকাশ করায় ১৬ বছর আগে এক সাংবাদিককে হত্যা করা হয়েছিল।

বৃহস্পতিবার বিচারপতি জগদ্বীপ সিং দোষী সাব্যস্ত রাম রহিমের পাশাপাশি তার তিন অনুসারীকেও একই মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন।

রায় ঘোষণার সময় উত্তর ভারতের পঞ্চুকলা শহরের আদালতে এ গুরুর অনুসারীরাও উপস্থিত ছিলেন।

নিহত সাংবাদিকের ছেলে অংশুল ছত্রপতির বরাত দিয়ে ভারতীয় এক্সপ্রেস সংবাদপত্রের প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘এটা সত্যের জয়। আজ থেকে আমরা মুক্ত হলাম। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানালেও আমরা এই শাস্তিতেই সন্তুষ্ট।’

ধর্ষণ মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে গত বছরের আগস্ট থেকে উত্তর ভারতের রোহতকে কারাবন্দী আছেন গুরু রাম রহিম। সে সময় তিনি আদালতে দোষী সাব্যস্ত হলে অনুসারীরা বিক্ষোভে ফেটে পড়ে। কয়েকদিন ধরে চলা সংঘর্ষে অন্তত ৩৮ জন নিহত এবং কয়েকশ আহত হন।

রাম রহিম হাজার হাজার অনুসারী নিয়ে হরিয়ানা রাজ্যে প্রায় ৪০০ একর জমির ওপর নির্মিত একটি আশ্রমে থাকতেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here