ভারতের ইলেকট্রনিক ভোট যন্ত্রকে (ইভিএম) ‘চোর মেশিন’ বললেন জম্মু-কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও ন্যাশনাল কনফারেন্সের প্রধান ডা. ফারুক আব্দুল্লাহ। গতকাল (শনিবার) পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কোলকাতার ব্রিগেড ময়দানে বিজেপিবিরোধী এক মহাসমাবেশে ভাষণ দেয়ার সময় তিনি ওই অভিযোগ করেন।

ফারুক আব্দুল্লাহ বলেন, “এটা ‘চোর মেশিন’। আমি অত্যন্ত বিশ্বস্ততার সঙ্গে বলছি এটা ‘চোর মেশিন’! এই মেশিনকে শেষ করে দেয়া উচিত। দুনিয়ার কোথাও এই মেশিন নেই। এই মেশিনের সাহায্যে চুরি (ভোট) করা হচ্ছে! নির্বাচনে তা দেখা গেছে।”

অন্যদিকে, অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু একে ‘ফ্রড মেশিন’ বলে অভিহিত করেছেন।

ইভিএমে কারচুপি বন্ধ করতে বিরোধীদের পক্ষ থেকে চারজনকে নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই কমিটিতে থাকবেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী ও আম আদমি পার্টির প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়াল, উত্তরপ্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদব এবং কংগ্রেসের সিনিয়র নেতা অভিষেক মনু সিংভি। এই কমিটি একটি বিস্তারিত প্রতিবেদন তৈরি করে তা নির্বাচন কমিশনের কাছে পেশ করবে। এরপর সব দলের প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে নির্বাচন কমিশনের কাছে স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় ভোট গ্রহণের দাবি জানানো হবে। এছাড়া সংসদের আগামী অধিবেশনের সময়ে এ নিয়ে আলোচনা হবে।

কংগ্রেস নেতা অভিষেক মনু সিংভি বলেছেন, “নির্বাচনের জন্য কাগজের ব্যালটে ফিরে যাওয়া উচিত। কিন্তু এখন নির্বাচনের আর মাত্র দুই/তিন মাস বাকি থাকায় চাইলেও এটা আর সম্ভব হবে না। সেজন্য ইভিএম দিয়ে যাতে স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় ভোটগ্রহণ করা যায়, সে ব্যাপারে নির্বাচন কমিশনের কাছে নির্দিষ্ট দাবি জানানো হবে। একশো শতাংশ ইভিএমে ‘ভিপিপ্যাট’ মেশিন লাগাতে হবে।”

প্রসঙ্গত, ইলেকট্রনিক ভোট যন্ত্রে একজন ভোটার তাঁর পছন্দের প্রার্থীকে বোতাম টিপে ভোট দেওয়ার পরে ভিভিপ্যাটের কাঁচের পর্দায় প্রার্থীর নাম ও প্রতীক ফুটে উঠবে। সাত সেকেন্ড ধরে তা থাকবে এবং এরপর ভোটের ওই কাগজটি ভিভিপ্যাট যন্ত্রের মধ্যে পড়ে যাবে। এভাবে একজন ভোটার নিশ্চিত হবেন যে তিনি যাকে ভোট দিয়েছেন, তিনিই ভোটটি পেয়েছেন।

জম্মু-কাশ্মিরের মুখ্যমন্ত্রী ডা. ফারুক আবদুল্লাহ নির্বাচন কমিশনকে সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনের ব্যবস্থা করার দাবি জানিয়েছেন। ইভিএমে যাতে কোনো জালিয়াতি না হয়, সেজন্য সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন বিএসপি নেতা সতীশ মিশ্র।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here