ইরানের পররাষ্ট্র বিষয়ক কৌশলগত পরিষদের প্রধান কামাল খাররাজি বলেছেন, ঐতিহাসিক পরমাণু সমঝোতা বা জেসিপিওএ বানচাল হলে ইউরোপের নিরাপত্তা ঝুঁকিতে পড়বে।

জার্মানি এবং জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচস্থায়ী সদস্যকে নিয়ে গঠিত ছয় জাতিগোষ্ঠী ২০১৫ সালের জুলাই মাসে ইরানের সঙ্গে জেসিপিওএ সই করেছিল।

কামাল খাররাজি বলেন, মার্কিন চাপের মুখে এ সমঝোতাকে রক্ষা করার প্রচেষ্টা যদি ইউরোপ বাদ দেয় তা হলে ভবিষ্যতে তাদেরকে ওয়াশিংটনের অনেক মাতব্বরি মেনে নিতে হবে।

জেসিপিওএ বানচাল হলে ইউরোপের নিরাপত্তাও বিঘ্নিত হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি। এদিকে, ইরানের সঙ্গে ব্যবসা করার জন্য ইউরোপীয় কোম্পানিগুলোকে সম্মত করাতে পারছে না বলে ইউরোপের কোনো কোনো দেশ যে অজুহাত দিচ্ছে তা গ্রহণযোগ্য নয় বলে পরিষ্কার ভাষায় জানিয়ে দেন তিনি। তিনি পাল্টা প্রশ্ন তোলেন, নিজেদের কোম্পানিগুলোর ওপর প্রভাব খাটানোর কোনো ক্ষমতা যদি না থেকে থাকে তবে ইউরোপ কোন যুক্তিতে ইরানের সঙ্গে আলোচনায় বসেছিল।

এ ছাড়া, এসপিভি নামে পরিচিত ইরানের সঙ্গে অর্থ লেনদেনের বিশেষ ব্যবস্থা বাস্তবায়নে বারবার বিলম্ব করছে ইউরোপ। এ কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, জেসিপিওএ’তে সই করা দেশগুলোকেও বিশ্বাস করা যায় না।

পরমাণু সমঝোতার আওতায় অর্থনৈতিক সুবিধা পাওয়ার আইনি অধিকার ইরানের আছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ইউরোপকে এটি বাস্তবায়নে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here