এবার রাজনীতিতে আসছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী কারিনা কাপুর খান। এরই মধ্যে বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপিকে পরাজিত করে মধ্যপ্রদেশের দখল নিয়েছে কংগ্রেস।

আসছে লোকসভা নির্বাচনে নিজেদের খুঁটি শক্ত করতে প্রস্তুত দলটি। তারা এমন কাউকে প্রার্থী হিসেবে রাখতে চান যার উপস্থিতি দলকে অক্সিজেন দেবে। সেই তালিকায় প্রথমেই রয়েছেন কারিনা। কংগ্রেসের চাওয়া ভোপাল থেকে কারিনাই নির্বাচনে দাঁড়ান।

কারিনাকে টিকিট দেয়ার ব্যাপারে কংগ্রেসের দুই নেতার ভাষ্য, কারিনার একটা বিরাট ভক্ত শ্রেণি রয়েছে। ভোটের ময়দানে নামলে নতুন প্রজন্ম তাকেই জেতাবে। এছাড়া মনসুর আলী খান পতৌদির পুত্রবধূ হওয়ায় কিছুটা এগিয়ে থাকবেন তিনিই। এই কিংবদন্তি ক্রিকেটারের জন্ম হয়েছিল ভোপালেই। পতৌদির পিতামহই ভোপালের শেষ নবাব হিসেবে রাজত্ব করেছিলেন।

সংবাদ প্রতিদিনের খবরে বলা হয়, পতৌদি পরিবারের সঙ্গে ভোপালের সম্পর্ক এখনও বেশ নিবিড়। সাইফ-কারিনা, শর্মিলা ঠাকুর, সোহা আলী খানদের ভোপালে আসতে দেখা যায়। যদি কারিনা ভোটে দাঁড়ান তাহলে তিনি ভোপালবাসীর ভালোবাসাই পাবেন।

কিন্তু ১৯৯১ সালে ভোপাল থেকে লোকসভা নির্বাচনে লড়েছিলেন মনসুর আলী খান পতৌদি। তবে সেবার বিজেপির সুশীলচন্দ্র বর্মার কাছে বিপুল ভোটে পরাজিত হন তিনি। তবে কারিনার জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী কংগ্রেস।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here