অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ের পর রবিবার নিউজিল্যান্ডে পৌঁছেছে বিরাটবাহিনী৷ কিউইদের বিরুদ্ধে পাঁচটি ওয়ান ডে এবং তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ খেলবে ভারত৷ নিউজিল্যান্ড সফরে মহেন্দ্র সিং ধোনি সামনে সচিন তেন্ডুলকরের রেকর্ড ভাঙার হাতছানি৷

আড়াই মাস পর ভারতীয় দলে ফিরে স্বপ্নের ফর্মে রয়েছেন ধোনি৷ সদ্যসমাপ্ত অজিদের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচে ওয়ান ডে সিরিজে হাফ-সেঞ্চুরির হ্যাটট্রিক করেছেন মাহি৷ তাঁর ব্যাটে ভর করে অস্ট্রেলিয়ায় প্রথমবার দ্বি-পাক্ষিক ওয়ান ডে সিরিজ জিতেছে ভারত৷ মেলবোর্নে সিরিজ নির্ণায়ক ম্যাচে ৮৭ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে ম্যাচ ও ভারতের সিরিজ জয়ে বড় ভূমিকা নেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক৷

কিউয়দের বিরুদ্ধেও ধোনির ব্যাট জ্বলে উঠলে সচিনকে টপকে যাবেন ভারতের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক৷ নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ওয়ান ডে ক্রিকেটে ভারতীয়দের মধ্যে সর্বাধিক ৬৫২ রান রয়েছে সচিনের৷ ১৮টি ম্যাচ এই রান করেছেন লিটল মাস্টার৷ তার পরে রয়েছেন বীরন্দ্রে সেহওয়াগ৷ ১২ ম্যাচে বীরুর ঝুলিতে রয়েছে ৫৯৮ রান৷ তার পরেই রয়েছেন ধোনি৷ ১০ ম্যাচে মাহির ঝুলিতে ৪৫৬ রান৷ অর্থাৎ কিউইদের বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজে ১৯৭ রান করলেই সচিনকে টপকে যাবেন ধোনি৷ কিউয়িদের বিরুদ্ধে বিরাটদের পাঁচ ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজ শুরু বুধবার নেপিয়ারে৷

২০১৮ বছরটা অবশ্য ভালো যায়নি ধোনির৷ ২০টি ইনিংসে মাত্র ২৭৫ রান এসেছে তাঁর ব্যাট থেকে৷ ১৪ বছরের আন্তর্জাতিক কেরিয়ারে গত বছর ছিল ধোনির সবচেয়ে খারাপ ব্যাটিং গড়৷ কিন্তু ২০১৯ স্বপ্নের শুরু মাহির৷ অস্ট্রেলিয়া সফরে তিন ম্যাচে তিনটি হাফ-সেঞ্চুরি৷ সিডনিতে প্রথম ম্যাচে মন্থর ব্যাটিংয়ের জন্য সমালোচিত হলেও পরের দু’টি ম্যাচে অ্যাডিলেড ওভাল ও মেলবোর্নে ম্যাচ জেতানো ধোনির হাফ-সেঞ্চুরি সমালোচকদের জবাব দেয়৷

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সদ্যসমাপ্ত সিরিজে ওয়ান ডে ক্রিকেটে ১০ হাজার রানের মাইলস্টোন টপকেছেন ধোনি৷ পঞ্চম ভারতীয় হিসেবে এই মাইলস্টোন ছুঁলেন মাহি৷ তাঁর আগে ১০ হাজারের গণ্ডি টপকেছেন সচিন তেন্ডুলকর, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, রাহুল দ্রাবিড় ও বিরাট কোহলি৷ ২০০৪ ঢাকায় ওয়ান ডে অভিষেক হয়েছিল ধোনির৷ ১৪ বছরের আন্তর্জাতিক কেরিয়ারে ১৬টি সেঞ্চুরি এবং উইকেটের পিছনে ৮০০ বেশি শিকার রয়েছে ধোনির ঝুলিতে৷

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here